ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ৮ ফাল্গুন ১৪২৪

প্রচ্ছদ » খেলা » বিস্তারিত

মাদারীপুরে মিনি আর্টিফিশিয়ালি টার্ফ এর যাত্রা শুরু 

২০১৮ ফেব্রুয়ারি ০৯ ১৮:২২:৫১
মাদারীপুরে মিনি আর্টিফিশিয়ালি টার্ফ এর যাত্রা শুরু 

মাদারীপুর প্রতিনিধি : ফুটবল। গ্রাম বাংলার জনপ্রিয় খেলা। আর সেই খেলাকে তৃণমূল পর্যায়ে পৌছে দিতে উদ্যোগ নিয়েছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন। তাদের সহযোগিতায় খেলোয়াড় তৈরিতে এবার দক্ষিণাঞ্চলের মধ্যে মাদারীপুর জেলায় তৈরি করা হলো মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ। এতে তিন বছর মেয়াদী প্রশিক্ষণে দিয়ে তৈরি করা হবে বালক-বালিকাদের ৫০ জনের একটি শক্তিশালী টিম। যারা দেশীয় গন্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ফুটবলে অবদান রাখবে। শুক্রবার মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ-এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়।

ক্রীড়ামোদীরা জানান, দর্শকদের মাতোয়ার করে রাখা খেলাই হচ্ছে ফুটবল। যতক্ষণ খেলা থাকে, ততক্ষণ উন্মোদনায় চারিদিখ মুখরিত হয়ে থাকে। সেই ফুটবলকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিতে দক্ষিণের জেলা মাদারীপুরে তৈরি করা হলো মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ। যেখানে তিন বছর মেয়াদী ২৫ জন বালক আর ২৫ জন বালিকাদের নিয়ে গঠন করা হবে দুটি প্রশিক্ষণ টিম।

নিবিড় পরিচর্যার মাধ্যমে ১০ থেকে ১৪ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের তৈরি করা হবে আন্তর্জাতিক মানের খেলোয়াড় হিসেবে। যারা অবদান রাখবে দেশীয় ক্রীড়াঙ্গনসহ আন্তর্জাতিক মহলেও। শুক্রবার দুপুরে এই কৃত্রিম মাঠের উদ্বোধন করেন নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।

এসময় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শোদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, সদস্য আমিরুল ইসলাম বাবু, মাদারীপুরের পুলিশ সুপার সরোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সৈয়দ ফারুক আহমেদ, পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ। সভায় সভাপতিত্ব করেন মাদারীপুর ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি চৌধুরী নূরুল আলম বাবু চৌধুরী। সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন মাদারীপুর ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম কবীর।

মাদারীপুর ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম কবীর জানান, এরই মধ্যে বিভিন্ন জেলা থেকে যাচাই বাচাই করে প্রশিক্ষানার্থী তৈরির কাজ শুরু করা হয়েছে। অনেক জেলা থেকে দারুন উৎসাহ পেয়েছি। আশা রাখি নভেম্বর-ডিসেম্বর প্রশিক্ষণ শুরু করা যাবে।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. ওবাইদুর রহমান খান জানান, এই মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ নির্মাণের ফলে দক্ষিণাঞ্চলের ফুটবলার তৈরিতে আলোকিত হাতছানি দিবে। তৃণমূল পর্যায়ে ফুটবলার তৈরিতে সহায়তা করবে।

আর বাফুফের সভাপতি কাজী মো. সালাহ্উদ্দিন বললেন, তৃণমূলে ফুটবলার তৈরিতে আগামীতে আরো মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ নির্মাণ করা হবে। এই পর্যন্ত তিনটি সম্পূর্ণ নির্মাণ হয়েছে, আরো দুটি নির্মাণ চলছে। আগামী বছর আরো পাঁচটি মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ নির্মাণ হবে।

প্রায় সোয়া এক কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই মিনি আর্টিফিশিয়াল টার্ফ ক্রীড়াঙ্গনে একটি মাইলফলক দৃশান্ত হয়ে থাকবে বলে দাবী মাদারীপুরবাসীর।

(এমআরএস/এসপি/ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০১৮)