ঢাকা, বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬

প্রচ্ছদ » পাশে দাঁড়াই » বিস্তারিত

ছেলেকে সুস্থ করতে পথে পথে বাবা-মা

২০১৯ মার্চ ২৫ ১৬:৪২:০৮
ছেলেকে সুস্থ করতে পথে পথে বাবা-মা

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি : সমবয়সী শিশুরা যখন খেলাধুলা ও হাসি-ঠাট্টায় মেতে থাকে ঠিক সে সময় ছয় বছর বয়সী সোহান আলী সরদার শিশুটি বিছানায় শুয়ে যন্ত্রনায় কাতরায়। দুরারোগ্য ‘মেনিনজোসেল’ (স্পাইনাল কর্ডের টিউমার) রোগে আক্রান্ত শিশু সোহান পাবনার চাটমোহর উপজেলার ধানকুনিয়া গ্রামের ভ্যান চালক ভুলন সরদার ও গৃহিণী বেলী খাতুনের একমাত্র ছেলে।

মলদ্বারের পাশে হয়েছে বেশ কয়েকটি বড় বড় গর্ত। হয়েছে দগ দগে ঘা। সেখান থেকে অঝোরে ঝড়ছে পুঁজ-রক্ত। শুধুই ফ্যাল ফ্যাল করে চেয়ে থাকে সোহান। তার চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে গিয়ে ইতিমধ্যে নিঃস্ব হয়ে গেছে পরিবারটি। ছেলেকে সুস্থ করতে পথে পথে ঘুরছেন অসহায় বাবা-মা।

শিশুটির বাবা ভুলন সরদার জানান, জন্মের পর সোহানের মলদ্বারের ওপরে টিউমার দেখা দেয়। অল্প কয়েকদিনের মধ্যে সেটি ফেটে গিয়ে পুঁজ-রক্ত ঝড়তে থাকে। স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক দেখিয়ে রোগ না সারায় সোহানকে প্রথমে রাজশাহী এবং পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। নানা পরীক্ষা-নীরিক্ষার পর সেখানকার চিকিৎসক বলেন সোহান মেনিনজোসেল (স্পাইনাল কর্ডে টিউমার) রোগে আক্রান্ত। খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অপারেশনের পর রোগীর সুস্থ হওয়ার বিষয়ে চিকিৎসাকরাও নিশ্চিত নন। আর চিকিৎসার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যয় হবে ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকা। চিকিৎসকের এমন কথা শুনে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন শিশুটির বাবা-মা। সংসার চালানো যেখানে কষ্টকর সেখানে ছেলের চিকিৎসা করানো ভ্যান চালক বাবার পক্ষে দুঃস্বপ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে। অর্থাভাবে বন্ধ হয়ে গেছে সোহানের ডাক্তার দেখানো ও ওষুধ খাওয়া।

একমাত্র ছেলের এমন করুণ অবস্থা কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না তার মা। অশ্রুসিক্ত নয়নে তার মা বেলী খাতুন বলেন, ‘ভাইরে আপনারা (সাংবাদিক) একবার আমার ছেলেকে নিয়ে লেখেন। আমার বিশ্বাস মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নজরে এলে অন্যদের মতো আমার ছেলেও বেঁচে যেতো। কারণ আমাদের মতো গরীব মানুষের তিনিই (প্রধানমন্ত্রী) একমাত্র ভরসা।’

সোহানের পরিবারেকে সহযোগিতার ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার অসীম কুমারকে জানানো হলে তিনি বলেন, ‘আমরা প্রশাসনিক সহযোগিতা প্রদান করবো, সমাজসেবা অধিদপ্তরসহ জেলা প্রশাসক স্যারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে সহযোগিতা আনার সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।’

সোহানের পরিবারকে সহযোগিতা করতে চাইলে এই নাম্বারে যোগাযোগ করা যেতে পারে- ০১৭৭৪২৯২২২৪ (বিকাশ)।

(এসএইচএম/এসপি/মার্চ ২৫, ২০১৯)