ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

প্রচ্ছদ » মিডিয়া » বিস্তারিত

স্বেচ্ছায় কারা বরণের দাবিতে ২১ সাংবাদিকের সাতক্ষীরা সদর থানায় অবস্থান 

২০১৯ জুন ০৩ ২৩:০১:৩১
স্বেচ্ছায় কারা বরণের দাবিতে ২১ সাংবাদিকের সাতক্ষীরা সদর থানায় অবস্থান 

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : প্রেসক্লাবে হামলাকারি জামায়াত ইসলামের এক অর্থযোগানদাতার মিথ্যা মামলায় স্বেচ্ছায় কারাবরণের দাবিতে সদর থানায় অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ ২১ জন সিনিয়র সাংবাদিক। বিকেল সাড়ে তিনটর দিকে তারা সদর থানার ভেতরের ফটকের সামনে এ অবস্থান নেন।

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, গত ৩০ মে প্রেসক্লাবের বহিস্কৃত ৪ সদস্যের নেতৃত্বে শতাধিক বহিরাগত সন্ত্রাসী রড, হকিস্টিকসহ দেশি অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালায়। এতে তিনি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ১০জন সিনিয়র সাংবাদিক গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় ২৪জনকে আসামী করে সদর থানায় একটি মামলা করা হয়। পুলিশ কোন আসামীকে গ্রেফতার করেনি। উপরন্তু হামলাকারি মামলার এজাহারভুক্ত বহিরাগত সন্ত্রাসী মনিরুজ্জামান তুহিন বাদি হয়ে সোমবার প্রেসক্লাবের সিনিয়র ২১ জন সাংবাদিকের নামে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে।

অভিযোগ মিথ্যা জেনেও সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান সেই মামলা রেকর্ড করেছে। তাই মিথ্যা মামলায় স্বেচ্ছায় কারাবরণের জন্য সাংবাদিকরা থানায় হাজির হয়েছেন। তবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎ মিশ আগামি রোববারের মধ্যে তুহিনের দায়েরকৃত মামলায় সকল আসামীদের বিরুদ্ধে চুড়ান্ত প্রতিবেদন দেয়ার প্রতিশ্রতিতে বিকেল সাড়ে ৬টার দিকে সাংবাদিকরা অবস্থান কর্মসুচি প্রত্যাহার করা হয়। একই সাথে প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহম্মদ বাপ্পির দায়েরকৃত মামলা আইন অনুযায়ি পরিচালিত হবে।

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎ মিশ বলেন, ভেলুলেস মামলা তাই আগামি রোববারের মধ্যে চুড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে পাঠানো হবে।

(আরকে/এসপি/জুন ০৩, ২০১৯)