ঢাকা, শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

প্রচ্ছদ » দেশের বাইরে » বিস্তারিত

আমেরিকার ওপর চীনের বদলা

২০১৯ জুন ০৯ ০৯:১৪:২৬
আমেরিকার ওপর চীনের বদলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: হুয়াওয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে চীনকে আটকাতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র। এরই মধ্যে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে হুয়াওয়ে। কিন্তু চীন কি চুপ করেই থাকবে? বিশ্লেষকেরা বলছেন, চাইলে চীনও থামিয়ে দিতে পারে আমেরিকার লম্ফঝম্ফ। কারণ শুধু অ্যাপল নয়, আরও অনেক মার্কিন কোম্পানিই চীনের ওপর নির্ভর করে মুনাফা গুনছে।

চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্যযুদ্ধ শুরুর পর থেকে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে অ্যাপল নিয়ে। বলা হচ্ছে, হুয়াওয়ের বদলা অ্যাপল দিয়ে নিতে পারে চীন। কারণ পণ্য উৎপাদন, সাপ্লাই চেইন ও ভোক্তা বাজার বিবেচনায় চীনের ওপর অনেকখানি নির্ভরশীল অ্যাপল। এরই মধ্যে চীনে অ্যাপলের পণ্য বিক্রির পরিমাণ কমেও গেছে। এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে চীনে ৩৬ দশমিক ৩ মিলিয়ন ইউনিট বিক্রি করেছিল অ্যাপল। সেখানে ২০১৯ সালে তা কমে হতে পারে ২৭ দশমিক ৮ মিলিয়ন ইউনিট। অর্থাৎ একদিক থেকে এখনই ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে অ্যাপল।

তবে শুধু অ্যাপল নয়, আরও অনেক মার্কিন কোম্পানিই চীনের ঘাড়ে সওয়ার হয়েই লাভের অঙ্ক বাড়াচ্ছে। সি চিন পিংয়ের সরকার যদি এগুলোর প্রতি বিরূপ ভাবাপন্ন হয়ে ওঠে, তবে পুরো মার্কিন অর্থনীতিতেই নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। ভোক্তা বাজার হিসেবে চীন বিশ্বে অন্যতম প্রধান। এর বাইরে আছে সস্তা শ্রমের প্রলোভন। তাই এত দিন চীনই ছিল বিনিয়োগকারীদের প্রধান গন্তব্য। এই চিত্রে পরিবর্তন এলে তা যুক্তরাষ্ট্রকেও ছেড়ে কথা বলবে না।

হংকংভিত্তিক প্রতিষ্ঠান গেভকাল রিসার্চ বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়ার ভালো সুযোগই আছে চীনের। এর মধ্যে আছে—বিরল ধাতুর রপ্তানি নিষিদ্ধ করা, চীনে কাজ করা মার্কিন নির্বাহীদের জীবন অতিষ্ঠ করে তোলা, চীনা মুদ্রা ইউয়ানের অবমূল্যায়ন, জ্বালানির বৈশ্বিক দর বাড়াতে কৌশল গ্রহণ প্রভৃতি। এ ছাড়া মার্কিন নাগরিকদের চীন ভ্রমণে বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে চীন।

(ওএস/পিএস/০৯ জুন, ২০১৯)