ঢাকা, শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

প্রচ্ছদ » দেশের বাইরে » বিস্তারিত

ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরান

২০১৯ জুলাই ০৫ ১৩:৪৮:৪৫
ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : একটি ইরানি তেলের ট্যাঙ্কার জব্দ করার ঘটনায় তেহরানে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরান। ওই তেলের ট্যাঙ্কারটি অবৈধভাবে জব্দ করা হয়েছে বলে তেহরানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের রাজকীয় নৌবাহিনীর সহায়তায় জিব্রাল্টারের আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সিরিয়া অভিমুখে যাত্রা করা একটি তেলের ট্যাঙ্কার আটক করে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করায় ওই তেলের ট্যাঙ্কারটি জব্দ করা হয়েছে।

স্পেনের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, গ্রেস ১ নামের পানামার ওই তেলের ট্যাঙ্কারটি যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধেই জিব্রাল্টার কর্তৃপক্ষ আটক করেছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র এই ঘটনাকে এক ধরনের ডাকাতি বলে উল্লেখ করেছেন। তবে ইরানের এমন মন্তব্যকে অর্থহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দফতর।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই ট্যাঙ্কারটি জব্দ করতে জিব্রাল্টার কর্তৃপক্ষের অনুরোধে সাড়া দিয়ে রাজকীয় নৌবাহিনীর ফোর্টি টু কমান্ডোর প্রায় ৩০ নৌসেনা যুক্তরাজ্য থেকে সেখানে পৌঁছেছেন।

এক বিবৃতিতে জিব্রাল্টারের মুখ্যমন্ত্রী ফ্যাবিয়ান পিকার্ডো বলেন, ব্রিটিশ নৌ সেনাদের সহায়তায় পুলিশ ও কাস্টমস এজেন্সি গ্রেস-১ নামের জাহাজটি আটক করে।

তিনি বলেন, বিশ্বাস করার যথেষ্ট কারণ রয়েছে যে, ওই ট্যাঙ্কারে করে অপরিশোধিত তেল সিরিয়ার বানিয়াস শোধনাগারে নেয়া হচ্ছিল। পিকার্ডো বলেন, সিরিয়ার ওই তেল শোধনাগারের ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ২০১১ সালে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

জিব্রাল্টার কর্তৃপক্ষের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র। তিনি একে সঠিক ও শক্ত পদক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছেন।

পানামার পতাকাবাহী ওই ট্যাঙ্কারটিতে হেলিকপ্টার থেকে দড়ি ফেলে এবং আশেপাশে স্পীড বোট নিয়ে ঘিরে ফেলা হয়। তবে ওই ট্যাঙ্কার লক্ষ্য করে কোন গুলি ছোড়া হয়নি।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মৌসাবি জানিয়েছেন, এই ‘অবৈধ আটকের’ ঘটনায় তেহরানে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত রবার্ট ম্যাকেয়ারকে তলব করা হয়েছে।

ইরানি টেলিভিশন চ্যানেল টু-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মৌসাবি ওই ট্যাংকার জব্দকে এক ধরনের ডাকাতি বলে উল্লেখ করে বলেন, তেলের ট্যাঙ্কারটি আটকের ক্ষেত্রে কোন বৈধ উপায় বা আন্তর্জাতিক আইন মানা হয়নি। ট্যাংকারটিকে যত দ্রুত সম্ভব ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মৌসাবি।

(ওএস/এসপি/জুলাই ০৫, ২০১৯)