ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬

প্রচ্ছদ » মুক্তিযুদ্ধ » বিস্তারিত

৮ আগস্ট, ১৯৭১

খুলনার রাজাকার বাহিনীর ব্যাপক হত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালায়

২০১৯ আগস্ট ০৮ ০০:০০:৫২
খুলনার রাজাকার বাহিনীর ব্যাপক হত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালায়

উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ ডেস্ক :বাংলাদেশ সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট জেনারেল ইয়াহিয়া খানের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে তাঁর জীবন নাশের প্রহসনমূলক বিচার অনুষ্ঠান থেকে বিরত না হলে এর দায়ভাগ ইয়াহিয়াকে বহন করতে হবে।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম অবিলম্বে বাংলাদেশের নেতার প্রহসনমূলক বিচার বন্ধের উদ্দেশ্যে ইয়াহিয়া খানের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য বিশ্বনেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।

ভারতীয় লোকসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরদার শরণ সিং পাকিস্তান সরকার কর্তৃক সামরিক আদালতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির বিচার অনুষ্ঠানের ঘোষণায় ভারত সরকারের উদ্বেগ ও ক্ষোভের কথা জানান। তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য বিশ্বনেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।

সোভিয়েত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আঁদ্রে গ্রোমিকো বাংলাদেশ প্রশ্ন আলোচনার জন্য বিশেষ সফরে নয়াদিল্লীতে আসেন।

পাকিস্তানের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হামিদুল হক চৌধুরী ও পিডিপি নেতা মাহমুদ আলী লন্ডনে এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ সরকারকে স্বীকৃতি দানের ব্যাপারে ভারতকে নিবৃত্ত করার জন্য সোভিয়েত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আঁদ্রে গ্রোমিকোর প্রতি আহ্বান জানান।

ঢাকা শহর শান্তি কমিটির সভায় ঢাকা শহর জামায়াতে ইসলামীর সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক গোলাম সরওয়ার বলেন, ‘পাকিস্তান টিকে থাকার জন্যে জন্ম লাভ করেছে এবং চিরদিন টিকে থাকবে। আমরা বর্তমান দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর সময়োচিত হস্তক্ষেপে সমস্যা কাটিয়ে উঠেছি।’

খুলনার রাজাকার বাহিনীর ব্যাপক হত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ চালায়। তেরখাদা থানার রাজাকাররা ২৫ জন মুক্তিযোদ্ধাকে নৃশংসভাবে হত্যা করে ও অনেককে আহত করে।

সিলেটের গোপালগঞ্জ থানার রাজাকার ও শান্তি কমিটির সদস্যদের অমানুষিক অত্যাচারে একজন মুক্তিযোদ্ধা শাহাদৎ বরণ করেন।

তথ্যসূত্র : মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর।

(ওএস/অ/আগস্ট ০৮, ২০১৯)