ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

প্রচ্ছদ » বিনোদন » বিস্তারিত

‘পর্ন ফিল্ম করেও মায়ের সাপোর্ট পেয়েছি’

২০১৯ আগস্ট ০৮ ১৫:০৮:৩৬
‘পর্ন ফিল্ম করেও মায়ের সাপোর্ট পেয়েছি’

বিনোদন ডেস্ক : প্রথমে তিনি ছিলেন ইনটেরিয়র ডিজাইনার। তারপর একটি সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় রানার আপ হওয়ার পর কিছুদিন মডেলিং করেছেন। ২০১৭ সালে বাংলা ধারাবাহিক ‘গুরুদক্ষিণা’ দিয়ে তার ছোটপর্দায় আসা। বাকিটা বাংলা ওয়েব সিরিজের দর্শকেরা জানেন।

‘ধানবাদ ব্লুজে’ তিনি একটি বোল্ড চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সেখানে ছিলো বেশ কিছু বিছানাদৃশ্য। ছিলো উষ্ণ কিছু চুমুও। সেইসব দৃশ্যগুলো লুফে নিয়েছে দর্শক। রাতারাতি আলোচনায় চলে এসেছে একটি নাম। তিনি শ্রীতমা দে।

কলকাতার এই অভিনেত্রী এখন হটকেক। তার সাহসী খোলামেলা অভিনয় নজর কেড়েছে দর্শক থেকে শুরু করে পরিচালক প্রযোজকদেরও। এখন পর্যন্ত ‘চরিত্রহীন’ ও ‘ধন্যবাদ ব্লুজ’ ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন। বর্তমানে প্রচুর ওয়েব সিরিজের অফার পাচ্ছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, অঞ্জন দত্তের পরবর্তী ছবির নায়িকাও তিনি হবেন।

তবে সমালোচনারও কিন্তু শেষ নেই এই নায়িকাকে নিয়ে। এমন খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয় করার জন্য অনেক বাজে কথার শিকার হতে হচ্ছে তাকে। তবে সেসব একদমই পাত্তা দিতে চাইছেন না শ্রীতমা। তিনি এইসব সমালোচনা মোকাবিলা করতে পাশে পেয়েছেন নিজের বাবা মাকে।

শ্রীতমার ভাষ্যে, ‘আমি থাকি কলকাতায়। আমার বাবা-মা পরিবার বহরমপুরে। তারা ‘ধন্যবাদ ব্লুজ’ বেশ আগ্রহ নিয়েই দেখেছেন। তাদের ভালো লেগেছে। সিরিজটির গল্প ছিলো পর্ন ফিল্ম মেকিং নিয়ে। আমার এক আত্মীয় সিরিজটি দেখে মাকে ফোন করে বলেছিলো, ‘বউদি পায়েল (শ্রীতমার ডাকনাম) এটা কী করেছে? পর্ন ফিল্ম করেছে।’

জবাবে মা বলেছিলেন, ‘হ্যাঁ দেখলাম তো। খুব ভালো করেছে। ওর অভিনয় খুব সুন্দর হয়েছে। তোমার দাদাও বললো মেয়ে খুব ভালো কাজ করেছে।’ তো পর্ন ফিল্ম করেও আমি কিন্তু মায়ের সাপোর্ট পেয়েছি। তারা এটাকে অভিনয় হিসেবেই দেখেছেন। মা-বাবার এমন সমর্থন যে কোনো সন্তানের জন্যই প্রেরণা ও সাহসের।’

শ্রীতমা ‘ধন্যবাদ ব্লুজ’র কাজের অভিজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ‘প্রথমে চরিত্রের কথাটা শুনে একটু ইতস্তত করছিলাম। কারণ এটা আমার ক্যারিয়ারের একেবারে প্রথম দিকের কাজ। দর্শকেরা এটাকে কীভাবে নেবে, এছাড়া এর পর আদেও কাজ পাবো কিনা এইসব ব্যাপারে টেনশন ছিল। কিন্তু পরিচালক সৌরভ পুরো ব্যাপারটাকে খুব সহজ করে দিয়েছে। এছাড়া রজতাভ দত্তসহ পুরো টিমের সবাই খুব হেল্পফুল। আমার মনেই হয়নি এত বড় স্টারদের সঙ্গে কাজ করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘ধন্যবাদ ব্লুজ’ করার পর ওই রকমের আরও অনেক চরিত্রের অফার এসেছিল। কিন্তু সেগুলো নাকচ করে দিই। এই মুহূর্তে একটু অন্য চরিত্রগুলোয় নিজেকে ঝালিয়ে নিতে চাই। পরবর্তী কালে এই ধরণের চরিত্রের অফার এলে নিশ্চয় করব, তবে গল্পটা যেন ভাল হয়।’

(ওএস/এসপি/আগস্ট ০৮, ২০১৯)