ঢাকা, রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

দেশী গরু-খাসিতে ভরে গেছে ধামরাইয়ের বড় চারটি হাট

২০১৯ আগস্ট ১০ ১৮:১৬:৪২
দেশী গরু-খাসিতে ভরে গেছে ধামরাইয়ের বড় চারটি হাট

দীপক চন্দ্র পাল, ধামরাই (ঢাকা) : ধামরাইয়ের গরুর হাট গুলিতে বিভিন্ন প্রজাতির দেশীয় গরু এসেছে।খাশির আমদানীও বেশ। হাজারো ক্রেতার দের উপস্থিতিতে জমে উঠেছে প্রতিটি গরুর হাট।সকাল থেকে গভীর রাত অবদি চলছে কেনা বেচা। সব শ্রেণীর ক্রেতারা তাদের পছন্দের গরু খাসি দর দাম করেই কিনছেন।এবার ভারতীয় গরুর উপস্থিতি নেই ফলে গরুর খামারীরা ও কৃষকরা লাভের আশা করছেন।আবার ক্রেতারা বলছেন দাম বেশী। হাটের পরিবেশ ভাল ও নিরাপদ।

সোমবার কুরবানির ঈদ। ঈদকে কেন্দ্র করে ঢাকার পাশে দেশের বৃহৎতম হাঠের একটি গরুর হাট ধামরাই কালামপর,প্রতি বৃহস্পতিবার হলেও ঈদের সময়ে ঈদের দিন পর্যন্ত হাঠ বসে।গোটা হাট বিদ্যুৎ বাতিতে আলোময় করে তুলেছে হাট কর্তৃপক্ষ। এই হাটে হাজার হাজার দেশীয় গরুর উপস্থিতি ক্রেতাতের আকৃষ্ট করে। পরিবেশ, যোযেগের ক্ষেত্রে ও নিরাপত্তার দিক দিয়ে সুন্দর।

এছাড়াও ধামরাইয়ের কালামপুর, গুমগ্রাম,বাথুলি,শরিফবাগ সহ চারটি বড় হাঠ বসে ধামরাইয়ে।ঈদের সময়ে এ কয় দিন হাট বসবে প্রতি দিন।দাম কম ।প্রতিটি দেশীয় গরুর গড়ন সুন্দর থাকায় ক্রেতারাও কিনছে।

হাটের রিপত্তার জন্য সার্বক্ষনিক পুলিশী প্রহড়া বসিয়েছে প্রশাসন। এছাড়াও সাদা পোশাকে ও গোয়েন্দা নজরদারী রয়েছে। সার্বিক আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রনে প্রতিটি গরুর হাটে পুলিশ সর্তক প্রহড়ায় রয়েছে বলে জানান ধামরাইয়ের ওসি রিজাউল হক।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিস প্রতিটি হাটে চিকিৎসা বুথ ও রোগ নির্ণয়ে ও সেবা দিচ্ছে।

ধামরাই পৌর এলকার ধানসিরি গুরুর হাঠের ইজারা গ্রহন কারী তুষার বলেন,ধামরাই পৌর সভায় এই প্রথম গুরু ছাগলের হাঠ বসেছে।এই হাঠটি মঙ্গলবার থেকে শুর হয়ে শেষ হবে ঈদের দিনপর্যন্ত। এই নিরাপত্থা ব্যবস্থা ও পরিবেশ ভাল বলে দাবী করেন।

কালামপুর হাটে ইজারা প্রাপ্ত কর্মকর্তা সালেহ আমম্মেদ বিপ্লব বলেন এ হাটে দাম কম ক্রেতারা হুমড়ি খেয়ে কিনছে গরু খাসি।এখানে কোনো প্রকার চাদাবাজি, ধান্দাবাজি নেই কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে।গরু ক্রয়ের পর ইজারদারদের স্থাপিত কক্ষে শত করা ৩ টাকা হারে হাসিল করে নিচ্ছে ক্রেতারা।

ভারতীয় গরুর উপস্থিতি না থাকায় এলাকার দেশী গরু ব্যবসায়ী ও খামারীরা কিছুটা উৎফুল্ল।
ধামরাইয়ের দুই শতাধিক গরুর খামারি প্রায় ২৫ হাজার গরু বাজারে বিক্রির জন্য আসছে। এছাড়াও কৃষকরাও একাধিক গরুর বিক্রির জন্যে বাজারে এনেছে।

এছাড়া খাসির বাজার ধামরাইয়ে বেশ কম,বড় ও সুন্দর সুন্দর খাসি বিক্রির জন্য এনেছে পাইকার,খামারী ও কৃষকরা।

খাসি বিক্রেতা হানিফ বলেন তিনি ৪০ টি খাসি এনেছেন ২৫টি বিক্রি করেছেন।দাম ভালোই বলেন।
আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রনে প্রতিটি গরুর হাটে পুলিশ সর্তক প্রহড়ায় রয়েছে বলে জানান ধামরাইয়ের ওসি দীপক ন্দ্র সাহা।

(ডিসিপি/এসপি/আগস্ট ১০, ২০১৯)