ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬

প্রচ্ছদ » মুক্তিযুদ্ধ » বিস্তারিত

২৭ অক্টোবর, ১৯৭১

৮নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনী পাকসেনাদের রতনপুর ঘাঁটি আক্রমণ করে

২০১৯ অক্টোবর ২৭ ০০:১১:২৯
৮নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনী পাকসেনাদের রতনপুর ঘাঁটি আক্রমণ করে

উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ ডেস্ক :রাজশাহীতে মক্তিবাহিনী রাজাকার ও মিলিশিয়া বাহিনীর বাগদানি অবস্থানের ওপর আক্রমণ চালায়। এতে রাজাকার ও মিলিশিয়াদের ঘাঁটি সম্পূর্ণ রূপে ধ্বংস হয় এবং ৫ জন রাজাকার ও মিলিশিয়া নিহত হয়।

৮নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনীর একদল যোদ্ধা পাকসেনাদের রতনপুর ঘাঁটি আক্রমণ করে। এই আক্রমণে পাকবাহিনীর ২ জন সৈন্য নিহতও ১জন রাজাকার বন্দি হয়।

গেরিলারা সন্ধ্যায় ঢাকার গভর্নর ভবনের দক্ষিণ গেটের সামনে ও মধ্যরাতে মতিঝিল সেন্ট্রাল গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুলের প্রধান শিক্ষয়িত্রীর বাসভবনে বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়।

‘অগ্রদূত’ পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়:
চিলমারী রণাঙ্গণে গত এক সপ্তাহের মধ্যে বর্বর পাকসেনারা মর্টারের সাহায্যে মুক্তিবাহিনীর অগ্রবর্তী ঘাঁটিগুলির ওপর গুলি বর্ষণ করে। কিন্তু মুক্তিবাহিনীর বীর যোদ্ধারা সাহসের সংঙ্গে পাল্টা আক্রমণ চালিয়ে পাকসেনাদের আক্রমণ প্রতিরোধ করে।

মুক্তিবাহিনী চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, রংপুর ও যশোর সীমান্তে পাকিস্তানি বাহিনীর ঘাঁটিতে গোলাবর্ষণ করে। পাকিস্তান এই গোলাবর্ষণের বিরুদ্ধে ভারতের কাছে প্রতিবাদ জানায়। পাকিস্তান সরকার অভিযোগ করে, ভারতীয় সেনাবাহিনী সীমান্ত লংঘন করে পূর্বপাকিস্তানে ঢুকে মর্টার ও ফিল্ডগানের সাহায্যে গোলাবর্ষণ অব্যাহত রেখেছে। ভারত পাকিস্তানের এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে।

চট্টগ্রামের গেরিলা যোদ্ধারা উপনির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থী ও কনভেনশণ মুসলিম লীগ নেতা মোহাম্মদ বখতিয়ার-এর বাসায় আক্রমণ চালায়। এতে মোহাম্মদ বখতিয়ার নিহত হন।

পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান জুলফিকার আলী ভুট্টো কায়রোতে প্রেসিডেন্ট আনোয়ার সাদাতের সাথে বৈঠক শেষে জেনেভা যাত্রা করেন। তিনি পাকিস্তানি প্রেসিডেন্টের বিশেষ দূত হিসাবে বিদেশ সফরে যান।

বেগম আখতার সোলায়মানের উদ্বৃতি দিয়ে লেবাননের একটি পত্রিকা জানায়, পূর্বপাকিস্তানের সাড়ে সাত কোটি মানুষ বিচ্ছিন্নতা বিরোধী। তারা সবাই সেনাবাহিনীকে সহযোগিতা করছে। শেখ মুজিব তার ওয়াদা ভঙ্গ করায় জনপ্রিয়তা হারিয়েছেন।

মহীউদ্দিনকে সভাপতি ও অলিউল্লাকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করে মাহবুবুর রহমান, হারুন-অর- রশীদ প্রমুখকে নিয়ে কক্সবাজার শহর ইসলামী ছাত্রসংঘের শাখা গঠিত হয়।

রংপুর জেলার ইসলামী ছাত্রসংঘের কর্মী সম্মেলনে প্রধান অথিতির ভাষণে আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ সবাইকে জেহাদী মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায়।

তথ্য সূত্র: মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর
(ওএস/এএস/পিএস/অ/অক্টোবর ২৭, ২০১৯)