ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

প্রচ্ছদ » মুক্তিযুদ্ধ প্রতিদিন » বিস্তারিত

০২ নভেম্বর, ১৯৭১

মুক্তিবাহিনী পাকসেনাদের পানছড়া নামক স্থানে এ্যামবুশ করে

২০১৯ নভেম্বর ০২ ২২:১৭:৩৭
মুক্তিবাহিনী পাকসেনাদের পানছড়া নামক স্থানে এ্যামবুশ করে

উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ ডেস্ক :মুক্তিবাহিনী কুমিল্লা জেলার পাকসেনাদের কায়েমপুর ঘাঁটির ওপর মর্টারের সাহায্যে আক্রমণ চালায়। এতে পাকবাহিনীর ২ জন সৈন্য নিহত ও ৪ জন আহত হয়।

মুক্তিবাহিনী ময়মনসিংহ জেলার শ্রীবর্দি থানায় পাকবাহিনীর ভয়াডাঙ্গা ঘাঁটি আক্রমণ করে। এতে পাকবাহিনীর ১০ জন সৈন্য নিহত হয়।

মুক্তিবাহিনী সিলেটের আলীনগর নামক স্থানে পাকসেনা ও রাজাকারদের একটি সম্মিলিত দলের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এই সংঘর্ষে ৩ জন পাকসৈন্য নিহত ও ৫ জন আহত হয়।

২নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনী এক প্লাটুন পাকসেনাকে পানছড়া নামক স্থানে এ্যামবুশ করে। এই এ্যামবুশে পাকবাহিনীর ৩ জন সৈন্য নিহত ও ৪ জন আহত হয়।

২নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনীর ৩টি কোম্পানী পাকসেনাদের পরশুরাম ও ফুলগাজী ঘাঁটির ১২শ’ গজের মধ্যে বাঙ্কার খুঁড়ে অবস্থান নেয়। হানাদার বাহিনীর একটি টহলদার দল ফেনীবেলুনিয়া রেললাইন দিয়ে মুক্তিবাহিনীর অবস্থানের ১০০ গজের মধ্যে এলে মুক্তিযোদ্ধারা পাকসেনাদের ওপর তীব্র আক্রমণ চালায়। এতে পাকবাহিনীর টহলদার দলের একজন লেফটেনেন্টসহ ১০ জন সৈন্যের সবাই নিহত হয় ।

পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক তিনজন সাবেক কেন্দ্রীয় সচিবসহ ৩২ জন উচ্চপদস্থ বাঙ্গালি সরকারী অফিসারের খেতাব প্রত্যাহার করেন।

রেডিও পাকিস্তান ঘোষণা কওে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট পাকিস্তানি প্রেসিডেন্টের জরুরি চিঠির জবাব পাঠিয়েছেন।

পিপলস পার্টি প্রধান জুলফিকার আলী ভুট্টো প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়ার ব্যক্তিগত প্রতিনিধি হিসেবে চীনা সরকারের সাথে আলোচনার জন্যে পিকিং বেইজিং) যান।
ভুট্টোর নেতৃত্বাধীন ৮ সদস্যের উচ্চ ক্ষমতা বিশিষ্ট প্রতিনিধি দলে রয়েছেন পাকিস্তান বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার মার্শাল এ.রহিম খান, সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ লে: জেনারেল গুল হাসান খান, নৌ-বাহিনীল চিফ অব স্টাফ রিয়ার এডমিরাল এ. রশীদ, পররাষ্ট্র সচিব সলতান মোহাম্মদ খান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দু’জন ডিরেক্টর জেনারেল আফতাব আহমদ খান ও তবারক হোসেন এবং ডিরেক্টর আহমদ কেওয়াল।
রাতে ভুট্টো ও চীনা প্রধানমন্ত্রী চৌ এন লাই আলোচনা বৈঠকে মিলিত হন।

ইসলামাবাদে পাকিস্তান সরকারের জনৈক মুখপাত্র ঘোষণা করেন, পাকিস্তান তার পূর্বাংশে বিরাজিত উত্তেজনাকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় বৃহৎ শক্তিবর্গের সাহায্য কামনা করেছে। গণচীন ও রুমানিয়া পাকিস্তানকে প্রয়োজনীয় অস্ত্র দিতে সম্মত হয়েছে।

পূর্ব পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওবায়দুল্লা মজুমদার সিলেটের সরকারি কর্মচারীদের উদ্দেশে বলেন, পাকিস্তান টিকে না থাকলে পাক-ভারত উপমহাদেশের মুসলিম জাতিই ধ্বংস হয়ে যাবে। ‘বাংলাদেশ’ ধোঁয়া তুলে ভারত ও তার চরেরা সে চেষ্টাই করছে ।

তথ্যসূত্রঃ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর
(ওএস/পিএস/নভেম্বর ০২, ২০১৯)