ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

প্রচ্ছদ » অর্থ ও বাণিজ্য » বিস্তারিত

দুই বছর নি‌ষিদ্ধ এনআরবিসির সা‌বেক চেয়ারম্যান ফরাছত আলী

২০২০ জুলাই ০৫ ১৫:০০:৫৪
দুই বছর নি‌ষিদ্ধ এনআরবিসির সা‌বেক চেয়ারম্যান ফরাছত আলী

স্টাফ রিপোর্টার : অনিয়ম, দুর্নীতির ও নানা জালিয়াতির ঘটনায় জর্জরিত এনআরবি কমার্শিয়াল (এনআরবিসি) ব্যাংকের পদত্যাগ করা সা‌বেক চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরাছত আলীকে দুই বছ‌রের জন্য নি‌ষিদ্ধ ক‌রে‌ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

রবিবার (৫ জুলাই) এ তথ্য নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম।

তি‌নি বলেন, ‘এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ ছিল। দীর্ঘদিন তা যাচাই-বাছাই করে তার প্রমাণ পেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে দুই বছর যেকোনো ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালক পদ থেকে তাকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চলতি বছরের ২১ জুন থেকে আগামী দুই বছর নিষিদ্ধ থাকবেন তিনি।’

জানা গে‌ছে, ফরাছত আলী মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সাবেক এক পরিচালককে বেনামে ঋণ দেয়ার ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। এমনকি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ওই পরিচালক এনআরবিসি ব্যাংকের পরিচালক না হয়েও পর্ষদ সভায় অংশ নিয়েছেন। ফরাছত আলী তাকে এসব কাজে সহায়তা করেছেন। এসব কারণে ফরাছত আলীকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

অন্যদিকে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের যে পরিচালককে ফরাছত আলী বেআইনি সুবিধা দিয়েছেন, তাকে গত জানুয়ারিতে পরিচালক পদ থেকে অপসারণ করা হয় ব্যাংক খাতের বিভিন্ন অনিয়মের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে।

অনিয়ম ও দুর্নীতিসহ বি‌ভিন্ন অ‌ভি‌যোগ মাথায় নি‌য়ে ২০১৭ সা‌লের ১০ ডিসেম্বর ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদের সভায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদত্যাগ করেন। পরে পর্ষদের সব কমিটি নতুনভাবে গঠন করা হয়। এছাড়া ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাকালীন চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরাছত আলীকে সরিয়ে নতুন দায়িত্ব দেয়া হয় তমাল এসএম পারভেজকে।

একই বছ‌রের ৬ ডিসেম্বর অনিয়ম ও দুর্নীতির ১০টি গুরুতর অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় নতুন প্রজন্মের এ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) দেওয়ান মুজিবুর রহমানকে অপসারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর পরেই ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ পুনর্গঠন করা হয়।

(ওএস/এসপি/জুলাই ০৫, ২০২০)