ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯

প্রচ্ছদ » দেশের বাইরে » বিস্তারিত

চার দশক পর বিশ্বের সবচেয়ে বড় সক্রিয় আগ্নেয়গিরিতে অগ্ন্যুৎপাত

২০২২ নভেম্বর ২৯ ০০:৪৫:০৪
চার দশক পর বিশ্বের সবচেয়ে বড় সক্রিয় আগ্নেয়গিরিতে অগ্ন্যুৎপাত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বের সবচেয়ে বড় সক্রিয় আগ্নেয়গিরিটি যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই দ্বীপে অবস্থিত। এর নাম মাওনা লোয়া। দীর্ঘ প্রায় চার দশক পর এটিতে অগ্ন্যুৎপাত শুরু হয়েছে। চারপাশে ছড়িয়ে পড়ছে আগ্নেয়গিরির ছাই ও ধ্বংসাবশেষ। সোমবার (২৮ নভেম্বর) সেখানের কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর এপির।

ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে জানিয়েছে, বিগ আইল্যান্ডের আগ্নেয়গিরির সামিট ক্যাল্ডেরায় রোববার গভীর রাতে অগ্নুৎপাত শুরু হয়। সোমবার সকালের দিকে জানানো হয়, লাভার প্রবাহ উপরের দিকে রয়েছে। আশপাশের বাসিন্দারা এখনো ঝুঁকি মুক্ত রয়েছে।

হাওয়াইয়ান আগ্নেয়গিরি অবজারভেটরি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, লাভার উদগিরন কোনা এলাকা থেকে দেখা যাচ্ছে। বর্তমানে অগ্ন্যুৎপাতটি একটি ফাটল অঞ্চলে স্থানান্তরিত হওয়ার কোনও ইঙ্গিত নেই।

ইউএসজিএসের মুখপাত্র মিয়েল করবেট বলেছেন, কতদিন অগ্ন্যুৎপাত অব্যাহত থাকবে বা জনবহুল এলাকায় লাভা পৌঁছাতে পারে কি না তা এখনই স্পষ্ট করা যাচ্ছে না।

চলতি বছরের শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) হাওয়াইর কর্মকর্তারা স্থানীয় বাসিন্দাদের সতর্ক করে জানায়, মাওনা লোয়া থেকে বড় ধরনের অগ্ন্যুৎপাতের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। কারণ এ ধরনের সব লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছিলেন, অগ্ন্যুৎপাত খুব শিগগির শুরু না হলেও তারা সতর্ক। কারণ সম্প্রতি আগ্নেয়গিরিটির শীর্ষে বেশ কয়েকবার ভূমিকম্প হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, অগ্ন্যুৎপাত শুরু হলে আশপাশের বাড়িঘরে লাভা পৌঁছাতে মাত্র কয়েক ঘন্টা সময় লাগতে পারে। মাওনা লোয়ায় সবশেষ অগ্ন্যুৎপাত হয় ১৯৮৪ সালে।

আগ্নেয়গিরিটি হাওয়াই দ্বীপের ল্যান্ডমাসের ৫১ শতাংশজুড়ে রয়েছে, তাই দ্বীপের একটি বড় অংশ অগ্ন্যুৎপাত দ্বারা প্রভাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

(ওএস/এএস/নভেম্বর ২৯, ২০২২)