ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

কেন্দুয়ায় ফুটবল ও কেরাম খেলা নিয়ে দ্বন্দ্বে নিহত ২

২০২৩ মার্চ ২১ ২০:১৭:২৮
কেন্দুয়ায় ফুটবল ও কেরাম খেলা নিয়ে দ্বন্দ্বে নিহত ২

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি : ফুটবল ও কেরামবোর্ড খেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় কেন্দুয়ায় একদিনে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এরা হলেন, উপজেলার মাসকা ইউনিয়নের পিজাহাতি গ্রামের তাহের উদ্দিন ভ‚ঞার ছেলে কবির (৫০) ও বলাইশিমুল ইউনিয়নের নোয়াদিয়া গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে সুবেল (২৮)।

শিশু কিশোরদের ফুটবল খেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোমবার পিজাহাতি গ্রামের আমির হামজার ছেলের সঙ্গে অন্যান্যদের কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে ওই গ্রামের মৃত তাহের উদ্দিন ভ‚ঞার ছেলে কবিরের উপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকেরা। কবির বাড়ির পাশেই জমিতে চাষাবাদের কাজ করছিলেন। খবর পেয়ে স্বজনরা ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক সেখানেই তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। পুলিশের উপ-পরিদর্শক এস.আই মোঃ আলী জানান, ফুটবল খেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করেই কবির নিহত হয়েছেন। তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অপর দিকে উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের নোয়াদিয়া গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে সুবেলের সাথে কেরাম খেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের লোকদের হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় সুবেল সহ তিন ভাই আহত হয়। এছাড়া তার এক ভাবি রুবেলের স্ত্রীও আহত হন। এ ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাত ৮টার দিকে। আশংকাজনক অবস্থায় সুবেলকে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন।

মঙ্গলবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে নিহত হন সুবেল। কেন্দুয়া থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেন, কেরাম বোর্ড খেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সুবেল প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। এ ঘটনায় এখনও কোন মামলা হয়নি।

(এসবিএস/এএস/মার্চ ২১, ২০২৩)