ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » মিডিয়া » বিস্তারিত

‘অসৎ সাংবাদিকদের কারণে সৎ সাংবাদিকতা হুমকির মুখে পড়েছে’

২০২৩ সেপ্টেম্বর ০৫ ১৯:২৫:০২
‘অসৎ সাংবাদিকদের কারণে সৎ সাংবাদিকতা হুমকির মুখে পড়েছে’

দিলীপ চন্দ, ফরিদপুর : ফরিদপুর সমাজে অসৎ সাংবাদিকতা বাড়ছে। এ অবস্থায় কোন ঠাসা হয়ে পড়েছে সুস্থ বস্তুনিষ্ট সাংবাদিকতা। অসৎ সাংবাদিকতার কারনে কালো টাকার মত সৎ সাংবাদিকতা হুমকির মুখে পড়েছে। ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদার এ কথাগুলি বলেছেন। ফরিদপুরে ‘নির্বাচনী সাংবাদিকতা’ বিষয়ক এক কর্মশালার সমাপনী দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এক কথাগুলি বলেন জেলা প্রশাসক।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে নিউজ নেট ওয়ার্ক এর ‘গণতন্ত্র উন্নয়নে গণমাধ্যমের সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ’ প্রকল্পের আওতায় ‘নির্বাচনী রিপোটিং’ বিষয়ক এ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক। শহরতলীর বদরপুর এলাকায় অবস্থিত ব্র্যাক লানিং সেন্টারে ইন্টারনিউজ ও ইউএসএআইডি’র সহযোগিতায় এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে নিউজ নেট ওয়ার্ক।

জেলা প্রশাসক বলেন, যে মিডিয়ার সম্পাদক সাহসী সেই মিডিয়ার সাংবাদিক সাহসি। সম্পাদক সাহসী না হলে এ জাতীয় প্রশিক্ষণ সাংবাদিকদের খুব একটা কাজে লাগে না।

তিনি বলেন, প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই। প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রতি বছর ৬০ ঘন্টা কর্মশালা করতে হয়। সেভাবে প্রতিটি মিডিয়া হাউজ যদি তাদের সাংবাদিকদের নিয়ে তিন মাস, ছয় মাস কিংবা এক বছরে একবার কর্মশালার আয়োজন করে তাহলে সাংবাদিকদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে তা শাক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারে।

জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদার আরও বলেন, নির্বাচনের পূর্বে, নির্বাচনের দিন এবং নির্বাচন পরবর্তি সময়ে সাংবাদিকদের গুরুত্বপূর্ণ ভ’মিকা রায়েছে। নির্বাচনের আগে এলাকায় কার বেশি জনপ্রিয়তা রয়েছে তার সঠিক চিত্র তুলে ধরলে রাজনৈতিক দলগুলোর মনোনয়নপত্র প্রদান সহজ হবে। কিন্তু কোন প্রার্থী দ্বারা আদৃষ্ট নির্বাচনের পূর্বে সাংবাদিকরা পক্ষপাতদুষ্ট সংবাদ পরিবেশন করা হলে প্রার্থী সঠিক হবে না এবং এতে দল ও দেশের পরিণামে ক্ষতিই হয়। নির্বাচনের দিন সাংবাদিকদের প্রহরীর ভ’মিকা পালন করতে হবে। নির্বাচনের পরবর্তিতে নির্বাচন কতটা গ্রহযোগ্য হয়েছে তা তুলে ধরার পাশাপাশি এলাকার সার্বিক পরিস্থিতির উপর নজরদারি রাখতে হবে।

সমাপনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জার্মান নিউজ এজেন্সি এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম ওরফে মিঠু, নিউজ নেটওয়ার্ক এর প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী জিয়াউর রহমান, প্রকল্প ব্যবস্থাপক রেজাউল করিম ও ইন্টার নিউজের বাংলাদেশ প্রগ্রাম কর্মকর্তা শাখাওয়াত হোসাইন ও ফরিদপুরের সমন্বয়ক পান্না বালা।

তিনদিনের কর্মশালার আভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য দেন ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান, নার্গিস বেগম ও তরিকুল ইসলাম।

এ কর্মশালায় ফরিদপুরের বিভিন্ন উপজেলারসহ জেলার ২০জন সাংবাদিক অংশ নেন। গত রবিবার থেকে তিন দিনব্যাপী এ কর্মশালা শুরু হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানের পরে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের হাতে সনদ তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদার।

(ডিসি/এসপি/সেপ্টেম্বর ০৫, ২০২৩)