ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » বিনোদন » বিস্তারিত

সিনেমার শুটিং ফেলে যাওয়া নিয়ে মুখ খুললেন সায়ন্তিকা

২০২৩ সেপ্টেম্বর ১৬ ১৬:৪০:০২
সিনেমার শুটিং ফেলে যাওয়া নিয়ে মুখ খুললেন সায়ন্তিকা

বিনোদন ডেস্ক : ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলাদেশের সিনেমায় অভিনয় করতে এসে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন বলে জানা গেছে। মনিরুল ইসলামের প্রথম প্রযোজিত সিনেমা ‘ছায়াবাজ’-এর শুটিং করছিলেন নায়িকা। এটি নির্মাণ করছেন তাজু কামরুল।

এ সিনেমায় চিত্রনায়ক জায়েদ খানের সঙ্গে জুটি বাঁধেন সায়ন্তিকা। শুটিং করতে গিয়ে খুবই সমস্যায় পড়লেন তিনি। প্রথমে সমস্যার কথা প্রকাশ্যে আনতে চাননি সায়ন্তিকা। তাই কলকাতায় ফিরে আসার পর এই বিষয়ে কোনো কথাও বলেননি তিনি।

‘ছায়াবাজ’ সিনেমার শুটিং শেষ না করেই চলে যান কলকাতায়। তার সঙ্গে নাকি বাজে ব্যবহার করেছেন সিনেমার নৃত্য পরিচালক মাইকেল। এমনকি তিনি হয়রানির শিকার হয়েছেন। এ বিষয়ে তিনি ভারতীয় গণমাধ্যমের কাছে খোলামেলা কথা বলেন।

কী ধরনের হয়রানির শিকার সায়ন্তিকা-এমন প্রশ্নের জবাবে সায়ন্তিকা জানান, ‘যদিও এখানে মাইকেলের নাম উঠছে, তবে গোড়ায় গন্ডগোল।’ বলা যেতে পারে, নায়িকাকে হয়রানি হতে হয়েছে প্রযোজকের অব্যবস্থাপনার জন্য।

সায়ন্তিকা আরও বলেন, প্রথমে অন্য মাস্টারজি এসেছিলেন নাচের দৃশ্য শুটিংয়ের জন্য। কিন্তু সেখানেও টাকা-পয়সা নিয়ে সমস্যার জন্য তিনি চলে যান। তারপর মাইকেল নামের একটি ছেলে আসে’।

এক সময়ে সায়ন্তিকা শুটিং না করেই চলে যান। তবে এ দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। এ প্রসঙ্গে সায়ন্তিকা বলেন, আমি একজন পেশাদার শিল্পী। তাই এরকম করার কথা ভাবতেই পারি না। মাইকেল আমার থেকে অনুমতি না নিয়েই হাত ধরে আমায় সরাতে গিয়েছিল। তখন আমি সবার সামনেই বাধা দিই।’

এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জানান, ‘মূল সমস্যার নেপথ্যে রয়েছেন সিনেমার প্রযোজক’। অভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘বার বার আমি প্রযোজক মনিরুলের সঙ্গে কিছু টেকনিক্যাল সমস্যা নিয়ে যোগাযোগ করে আকর্ষণের চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু তার কাছ থেকে কোনো সাড়াই পাওয়া যায়নি। ওর কোনো পরিকল্পনা নেই। কোনো ব্যবস্থাপনা নেই।’

সায়ন্তিকা আরও জানান, দুদিন ধরে কক্সবাজারে গিয়ে তিনি অপেক্ষা করেন। প্রযোজকের কোনো পরিকল্পনা ছিল না। অভিনেত্রীর কথায়, ‘হঠাৎই বলা হলো, নাকি নাচের দৃশ্যের শুটিং করা হবে! বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করার পরেও যখন মনিরুল উত্তর দেননি, তখন বলেছিলাম, আমি এইভাবে কাজ করব না মাইকেলের সঙ্গে।’ তবে নায়িকার দাবি, এত কিছুর পরেও প্রযোজক নাকি জানিয়েছিলেন, মাইকেলকে নিয়েই কাজ করতে হবে।

এ সিনেমার কাজে খুবই তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে বলেন জানান সায়ন্তিকা। তবে কাজ শেষ করবেন না, এমনটা নয়। সায়ন্তিকা বলেন, ‘তিনি যদি সঠিক পদ্ধতিতে কাজ করেন, তা হলে আমি নিশ্চয়ই সিনেমার কাজ শেষ করব। কিন্তু তার আগে আমায় চিত্রনাট্য, শট ডিভিশন পুরোপুরি জানাতে হবে।’

(ওএস/এএস/সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২৩)