ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

মোবাইলে কথা বলার জেরে ইউপি চেয়ারম্যানের মাথা ফাটালেন হোটেল মালিক

২০২৩ সেপ্টেম্বর ১৯ ১৭:২৪:২৮
মোবাইলে কথা বলার জেরে ইউপি চেয়ারম্যানের মাথা ফাটালেন হোটেল মালিক

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর : গাজীপুরে খাবার হোটেলের ভেতর মোবাইলে কথা বলার জেরে হোটেল মালিকের হামলায় মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন দুলাল গুরুত্বর আহত হয়েছেন। তাকে ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে গাজীপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের বিপরীত পাশে হোটেল কস্তুরীতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় আহত চেয়ারম্যানের ভাতিজা নাজমুল সিকদার বাদী হয়ে হোটেলের মালিক শ্রীপুর উপজেলার মারতা গ্রামের সেলিম মিয়া(৫০) কে অভিযুক্ত করে গাজীপুর সদর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনার পর থেকেই সেলিম মিয়া গা ঢাকা দেয়।

জানা গেছে, চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন দুলাল তার ম্যানেজার লোকমান ও প্রতিবেশী মাসুম রানা মন্ডলসহ কয়েকজন মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গাজীপুর শহরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের বিপরীত পাশে হোটেল কস্তুরীতে বসে নাস্তা করছিলেন। তিনি মোবাইলে কথা বলার সময় হোটেলের মালিক মোঃ সেলিমের সঙ্গে চেয়ারম্যানের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে হোটেল মালিক সেলিম ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ারম্যানের মাথায় কাঁচের বোতল দিয়ে একাধিকবার আঘাত করেন। এতে চেয়াম্যান রক্তাক্ত জখম হন। এসময় তাকে রক্ষা করতে গেলে হোটেল মালিক ও কর্মচারিরা মিলে চেয়ারম্যানের সঙ্গে থাকা লোকদেরও মারধর করা হয়।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সদর মেট্রো থানার ওসি জিয়াউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ ঘটনা তদন্ত করে দেখছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। ঘটনার পর মালিক ও কর্মচারিরা পালিয়ে গেছে।

(এস/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩)