ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » আইন আদালত » বিস্তারিত

সাংবাদিক নাদিম হত্যা: হাইকোর্টে জামিন পেলেন আসামি বাবু

২০২৩ সেপ্টেম্বর ১৯ ১৮:২২:২৭
সাংবাদিক নাদিম হত্যা: হাইকোর্টে জামিন পেলেন আসামি বাবু

স্টাফ রিপোর্টার : সংবাদ প্রকাশের জেরে জামালপুরের বকশীগঞ্জে সাংবাদিক গোলাম রব্বানী নাদিম হত্যার ঘটনায় করা মামলায় গ্রেফতার উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের বরখাস্ত চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ সংক্রান্ত বিষয়ে করা আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি মোহাম্মদ শওকত আলী চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আনোয়ারা শাহজাহান জানান, গতকাল সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) আলোচিত এ হত্যা মামলার প্রধান আসামি মাহমুদুল আলম বাবুকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

তবে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন জানান, এ জামিন স্থগিত চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। আগামীকাল বুধবার চেম্বারজজ আদালতে এ আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।

এর আগে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় জামিন আবেদন করেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি বরখাস্ত চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু।

সংবাদ প্রকাশের জেরে গত ১৪ জুন রাতে বকশীগঞ্জে বাসায় ফেরার পথে উপজেলার পাটহাটি এলাকায় সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত হন সাংবাদিক নাদিম। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ জুন বিকেল ৩টায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় ১৮ জুন সাংবাদিক নাদিমের স্ত্রী বাদী হয়ে ২২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। মামলার প্রধান আসামি সাধুরপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু, জাকিরুল, রেজাউল, মনিরুলসহ আসামির মধ্যে চারজনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন অন্য আসামি গোলাম কিবরিয়া সুমন। পুলিশ অজ্ঞাতনামা হিসেবে আরও আটজনকে গ্রেফতার করলেও মামলায় তাদের নাম উল্লেখ ছিল না।

গ্রেফতার আসামিদের আদালতে সোর্পদ করে বিভিন্ন মেয়াদের রিমান্ডের আবেদন করেন। আদালত ১৩ জনকেই বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। প্রধান আসামি মাহমুদুল আলম বাবুর পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়। রিমান্ড শেষে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ সব আসামিকে আদালতে সোর্পদ করেন। আদালত তাদের কারাগারে পাঠান।

সাংবাদিক নাদিম হত্যা মামলার আসামিদের মধ্যে রয়েছেন- বকশীগঞ্জ উপজেলার কামালেরবার্তি গ্রামের ফাহিম ফয়সাল রিফাত (২২), নামাপাড়া গ্রামের ননির ছেলে এমডি রাকিবিল্লাহ রাকিব (২৮), আরচাকান্দির গাজী আমর আলী মেম্বার (৫৫), কাগমারীপাড়া গ্রামের সাফিজল হকের ছেলে শরীফ মিয়া (২২), মালিরচর তকিরপাড়ার আব্দুল করিমের ছেলে লিপন মিয়া (৩০), পূর্ব কামালেরবার্তী গ্রামের মফিজল হকের ছেলে মনিরুজ্জামান মনির (৩৫), নামাপাড়ার শেখ ফরিদ (৩০), টাঙ্গারীপাড়ার কামালের ছেলে ওমর ফারুক (৩২), বটতলী সাধুরপাড়ার আবুল কালামের ছেলে রুবেল মিয়া (৩৫), খেতারচর দক্ষিণপাড়ার জহুরুল হকের ছেলে সুরুজ মিয়া আইড়মারি শান্তি নগরের জলিলের ছেলে বাদশা মিয়া (৩৬), মদনেরচরের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আবু সাঈদ (২৮), আরচাকান্দির মজিবুর রহমানের ছেলে ইমান আলী (৩৩), কুতুবের চরের সাবেক মেম্বার রফিকুল ইসলাম (৫০) ও সুর্য্যনগর গ্রামের কারিমুল মাস্টারের ছেলে আমান উল্লাহ (৩০)।

(ওএস/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২৩)