ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল » বিস্তারিত

জুতা কেনার সময় যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন

২০২৩ সেপ্টেম্বর ২১ ১৮:১২:০৬
জুতা কেনার সময় যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক : কে কোন ধরনের জুতা পরছেন, তার ওপর ব্যক্তিত্ব প্রকাশ পায়। তাই জুতা কেনার সময় কিছু বিষয় মাথায় রাখা জরুরি। ডিজাইন কিংবা রং দেখে জুতা কেনার আগে প্রথমে যাচাই করুন সেটি আরামদায়ক কি না। এর জন্য দেখে, শুনে ও বুঝে জুতা কিনুন, যাতে পায়ের সুরক্ষা বজায় থাকে।

জুতা কেনার সময় প্রথমে দেখে নিন সেটি জলরোধ করে কি না। এছাড়া জুতা অ্যান্টি-স্কিড হলে শীত, বৃষ্টি বা তুষারপাতের ক্ষেত্রে তীব্রতা ও দুর্ঘটনা এড়াতে সাহায্য করবে। এছাড়া বেশি হাঁটাহাঁটির কারণে পায়ে ব্যথা হতে পারে। তাই বেশি ভারী জুতা পরা এড়িয়ে চলুন। হালকা ওজনের জুতা বেছে নিন। পাশাপাশি গুণমান পরীক্ষার চেষ্টা করুন।

কতদিন ধরে আপনি একই মাপের জুতা পায়ে দিচ্ছেন, তা জুতা কেনার সময় মনে রাখবেন। মনে রাখবেন, নারীদের পায়ের মাপ কিন্তু সময় সময় বদলায়। বয়স বাড়া ছাড়াও ওজন পরিবর্তনের কারণে মেয়েদের পায়ের মাপেও পরিবর্তন আসে। যেমন মুটিয়ে গেলে বা ওজন হ্রাস পেলে। গর্ভকালে পা কিছুটা ছোট-বড় হয়।

অনেকে একটু আঁটসাঁটো জুতা কিনতে পছন্দ করেন। তারা মনে করেন, কয়েকদিন পায়ে দেওয়ার পর খানিকটা ঢিলেঢালা হবে। অথচ প্রতি ১০টির মধ্যে ৯টি ক্ষেত্রে এমন হয় না। আবার বেশিরভাগ নারী মনে করেন, নতুন জুতা একটু টাইট কেনাই ভালো। এ কারণে দেখা গেছে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেই জুতা পায়ে পরে তারা খুব একটা আরামবোধ করেন না বরং অস্বস্তিতে থাকেন। তাই পায়ের সঠিক মাপে জুতা কিনতে হবে।

সকালে জুতা বা হিলজুতা কেনা উচিত নয়। কারণ দিন শেষে পা কিছুটা ফুলে যায়। তাই বিকেলে বা সন্ধ্যায় জুতা কেনা হলে সঠিক হবে। এমনকি ফ্যাশনেবল হলেও হিল কেনা ভালো নয়। খুব কম সময়ের জন্য হলেও হিল পা ও মেরুদণ্ডের অনেক ক্ষতি করে। তাই হিল কিনলেও সঙ্গে একজোড়া ফ্ল্যাট জুতা কিনে রাখা ভালো।

(ওএস/এসপি/সেপ্টেম্বর ২১, ২০২৩)