ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রচ্ছদ » মুক্তিযুদ্ধ প্রতিদিন » বিস্তারিত

৩০ নভেম্বর, ১৯৭১

'মুক্তিবাহিনীর চাপের মুখে পাকিস্তানী বাহিনী পঞ্চগড় ত্যাগ করতে বাধ্য হয়'

২০২৩ নভেম্বর ৩০ ১২:০০:০১
'মুক্তিবাহিনীর চাপের মুখে পাকিস্তানী বাহিনী পঞ্চগড় ত্যাগ করতে বাধ্য হয়'

উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ ডেস্ক : ডাউকি সাবসেক্টর ট্রুপস্ এবং ৩য় বেঙ্গল রেজিমেন্ট যৌথভাবে মেজর সাফায়াত জামিলের কমান্ডে রাধানগর পাক অবস্থানের ওপর আক্রমণ অব্যাহত রাখে। দীর্ঘ কয়েক ঘন্টাব্যাপী তীব্র যুদ্ধের পর রাধা নগর শত্রুমুক্ত হয়। সংঘর্ষে ৩ জন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন। কয়েকজন আহত হন। এই যুদ্ধে পাকবাহিনীর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। এখানে একজন পাঠান সুবেদারকে মুক্তিযোদ্ধারা জীবিত ধরে আনতে সক্ষম হয়।

একই সময় মুক্তিবাহিনী ও সম্মিলিত মিত্রবাহিনী গোয়াইনঘাটের দিকে অগ্রসর হয় এবং গোয়াইনঘাট নিজেদের নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়।

টেংরাটিলা পাকহানাদার মুক্ত করার জন্য সেক্টর কমান্ডার মেজর শওকত স্বয়ং আক্রমণ পরিচালনার ভার গ্রহন করেন। সকাল ৭টায় মুক্তিবাহিনী প্রথম আক্রমণ করে। পাকবাহিনী প্রতিরক্ষা ব্যুহ খুবই দৃঢ় ছিল। চতুর্দিক থেকে প্রবল আক্রমণের ফলে পাকবাহিনী টিকতে না পেরে অবশেষে তাদের রেশন, গোলা-বারুদ ফেলে রেখে একটি পায়েচলা পথে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়।

৩নং সেক্টরের মুক্তিবাহিনীর সংঙ্গে আখাউড়াতে পাকবাহিনীর প্রচন্ড লড়াই চলছে। এস ফোর্স কম্যান্ডার লে. কর্নেল সফিউল্লাহ তাঁর ২য় ও একাদশ ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্টএবং সেক্টর ট্রুপস্-এর দুটি কোম্পানী নিয়োগ করেন। পরিকল্পনা হলো, একাদশ বেঙ্গল রেজিমেন্ট মেজর নাসিমের নেতৃত্বে সিলেট থেকে অগ্রসরমান পাকসেনাদের গতিপথ রুদ্ধ করবে। কম্ন্ডার মেজর নাসিম ইতিমধ্যে মুকুন্দপুর, হরশপুর ইত্যাদি এলাকা নিজ নিয়ন্ত্রণে আনেন।

পাকিস্তানী মুখপাত্র রাওয়ালপিন্ডিতে বলেন, আজ পূর্বাঞ্চলের সীমান্তবর্তী ১৮টি স্থানে ভারতীয়রা [মুক্তিবাহিনী] আক্রমণ পরিচালনা করে। রংপুর ও দিনাজপুরের পঞ্চগড়ে প্রবল চাপ সৃষ্টি করা হয়। পাকিস্তানী বাহিনী পঞ্চগড় ত্যাগ করতে বাধ্য হয়।

সামরিক কর্তৃপক্ষ ২২ জন বাঙ্গালি পুলিশ অফিসারকে ঢাকায় সামরিক আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

রাওয়ালপিন্ডিতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে জামায়াতের আমীর গোলাম আজম বলেন, জামায়াতে ইসলামীর সদস্য এবং রাজাকাররা পাকিস্তানকে রক্ষার জন্য প্রাণ দিচ্ছে। আমরা এটা আমাদের কর্তব্য মনে করেই বিচ্ছিন্নতাবাদী ও রাষ্ট্রবিরোধী লোকদের বিরুদ্ধে পাকিস্তান সরকার ও সেনাবাহিনীকে সহযোগিতা দান করছি।

যুদ্ধ পরিস্থিতি রিপোর্ট: ৮নং সেক্টর

G-0665 Gono Bahini. En attacked own Gono Bahini

dt-30/11/71 base Aburi QO 7743 on 280800 Nov. and

firing continued upto 1700 hrs. Own cas 5 Pak

tps and 32 Razakars dead. Own cas 1 Gono

Bahini dead, 1 Gonobahini wounded.

Captured 3 Razakar. Captured 1 Rifle.




তথ্যসূত্র : মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর

(ওএস/এএস/নভেম্বর ৩০, ২০২৩)