ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

ইয়াদ পত্রিকা বন্ধসহ প্রতারক তোফাজ্জল ও নাসরিনের বিরুদ্ধে ঢাকা ও না.গঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেটে অভিযোগ

২০২৩ ডিসেম্বর ০৩ ১৭:১৬:১০
ইয়াদ পত্রিকা বন্ধসহ প্রতারক তোফাজ্জল ও নাসরিনের বিরুদ্ধে ঢাকা ও না.গঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেটে অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : অসৎ উদ্দেশ্য অনৈতিকভাবে বিশিষ্টজনদের টার্গেট করে ব্ল্যাকমেইলিংয়ের মাধ্যমে চাঁদা আদায়ের জন্য অবৈধ ভাবে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশ করছে দৈনিক ইয়াদ নামক পত্রিকা। অথচ পত্রিকাটির ডিক্লারেশন বর্তমানে বহাল নেই বলে জানা যায়। মানসম্মান ক্ষুন্ন ও সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে মানব কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মান্নান ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন সংবাদ পরিবেশন করে হয়রানী করছে।

অবশেষে ভুক্তভোগী সংগঠক ও গণমাধ্যমকর্মী মান্নান ভূঁইয়া অবৈধভাবে প্রকাশিত দৈনিক ইয়াদ পত্রিকাটি বন্ধসহ প্রতারক তোফাজ্জল ও নাসরিনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। ২৮ শে নভেম্বর ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর লিখিত অভিযোগটি করা হয়। অভিযোগ নাম্বার ঢাকা-৩১১০৭ ও নারায়ণগঞ্জ-১৭৫৬৪।

জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে লিখিত অভিযোগে বলা হয়, মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে প্রতারক তোফাজ্জল হোসেন ও এজাজুল হকের মেয়ে নাসরিন আক্তার প্রতারণার মাধ্যমে ধোকা দিয়ে বিভিন্ন লোকজনকে টাকার বিনিময়ে সাংবাদিকতার কার্ড দিয়ে মানুষের চরিত্র হরণ করার লাইসেন্স দিয়েছে। কল্পকাহিনী তৈরি করে সমাজকর্মী মান্নান ভূঁইয়াসহ বিভিন্ন মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ পরিবেশন করে বিশিষ্টজনদের সামাজিক ভাবে মানসম্মান ক্ষুন্ন ও ব্যবসায়ীক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে।

ঢাকা জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে ডিক্লারেশন বাতিলকৃত দৈনিক ইয়াদ নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে তোফাজ্জল হোসেন অবৈধ ভাবে ভুয়া সম্পাদনা করে মানুষের মানহানী করছে। প্রতারক চক্রের টাকার বিনিময়ে ভালোকে মন্দ আর মন্দকে ভালো বানিয়ে মিথ্যা খবর ছড়িয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। চাঁদাবাজি সহ মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের জন্য যৌথ বাহিনী তৎকালীন সময়ে প্রতারক তোফাজ্জলকে আটক করে চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে জেলহাজতে প্রেরণ করেছিল এবং সেই মামলায় তোফাজ্জল হোসেনের তিন বছরের সাজা হয়েছিল এবং জেল থেকে বেরিয়ে আবারও শুরু করে দিয়েছে অপসাংবাদিকতা।

অবৈধ দৈনিক ইয়াদ পত্রিকা ও তোফাজ্জলের নামে নারায়ণগঞ্জ আদালতে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশনের দায়ে বর্তমানে কয়েকটি মানহানী মামলা চলমান রয়েছে। এছাড়াও পত্রিকায় প্রকাশের আগে আর্থিক সুবিধা আদায়ের জন্য বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষদের হুমকী ধামকী দিয়ে তোফাজ্জল ও নাসরিন আক্তারের ফেসবুক আইডি থেকে অপপ্রচার চালায় এবং বিভিন্ন অনলাইন গ্রুপ ও ম্যাসেঞ্জারসহ কমেন্টে অশ্লীল মন্তব্য করেই যাচ্ছে, যা সাইবার ক্রাইমের সামিল।

তাছাড়া অবৈধভাবে পত্রিকা প্রকাশিত করে সরকারের রাজস্বও ফাঁকি দিচ্ছে। অপরাধীদের অপপ্রচার এবং হুমকী ধামকীতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটানোসহ সামাজিক সাংগঠনিক কাজে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে সরকারি ভাবে নারায়ণগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ সংগঠকের পুরস্কারপ্রাপ্ত এম এ মান্নান ভূঁইয়া।

তিনি ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা করে লিখিত অভিযোগে আরো বলেন, আমি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মানব কল্যাণ পরিষদের মাধ্যমে মানবিক কর্মসূচী বাস্তাবায়নসহ সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত থেকে কাজ করছি। কিন্তু একটি কুচক্রী মহল ঈর্ষান্বিত হয়ে ক্ষয়-ক্ষতি করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন মানুষের কাছে বিভ্রান্তি ও মানহানীমূলক কথাবার্তা সহ বানোয়াট তথ্য পরিবেশন করে হয়রানী করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন উল্লেখিত অপপ্রচারকারী ও অপরাধী ছাড়াও আরও কয়েকজন চিহ্নিত প্রতারক চক্র মিথ্যা মামলা মোকদ্দমার ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে।

এ ব্যপারে নারায়ণগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও ঢাকা জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অবৈধভাবে প্রকাশিত পত্রিকাটি বন্ধসহ সাইবার অপরাধী প্রতারক তোফাজ্জল ও নাসরিনের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবী জানান ভুক্তভোগী সংগঠক ও গণমাধ্যমকর্মী এম এ মান্নান ভূঁইয়া।

(এস/এসপি/ডিসেম্বর ০৩, ২০২৩)