ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » বিনোদন » বিস্তারিত

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন না শাকিব-জায়েদ খান

২০২৪ এপ্রিল ১৯ ১৪:২৮:৪৬
শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন না শাকিব-জায়েদ খান

বিনোদন ডেস্ক : বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ (শুক্রবার)। বিএফডিসি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২০২৪ থেকে ২০২৬ মেয়াদের এই নির্বাচনের ভোটগ্রহণ।

তবে এবারের নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন সমিতির সাবেক সভাপতি শাকিব খান ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

জানা গেছে, নিয়মতান্ত্রিক জটিলতার কারণে নয়, বর্তমানে ভারতে অবস্থান করায় এবারের নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন না শাকিব। হায়দরাবাদে তার অভিনীত ‘দরদ’ সিনেমার শুটিং চলছে। মূলত দৃশ্যধারণের কাজে অংশ নেওয়ার কারণেই ভোট দিতে পারছেন না তিনি।

এদিকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও আলোচিত নায়ক জায়েদ খানও এবার ভোট দিতে পারছেন না। সমিতি থেকে তার সদস্যপদ খারিজ হওয়ায় ভোটের সুযোগ হারিয়েছেন তিনি।

গেল মার্চ মাসে শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ বিষয়টি জানান। তিনি আরও জানিয়েছিলেন, শিল্পী সমিতির সাধারণ সভায় সাধারণ সম্পাদকের প্রতিবেদনে ৯ নং একটি বার্তায় জায়েদ খানের সদস্যপদ খারিজ ঘোষণা দেওয়া হয়।

ঘোষণাপত্রে জানানো হয়, কোনোরূপ সাংগঠনিক দুর্বলতা না পেয়ে জায়েদ খান ব্যক্তিগত আক্রোশ ধারাবাহিকভাবে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিসহ সাধারণ সম্পাদকের নামে মিথ্যা, মনগড়া, কুরুচিপূর্ণ কল্পকাহিনী সংবাদ সম্মেলন, ইউটিউব, ফেসবুক ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করায় গত ০২/০৪/২০২৩ তারিখে সভায় সর্বসম্মতিক্রমে জায়েদ খানের সমিতির সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে।

এবারের নির্বাচনে ২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটিতে পদ পেতে ছয়জন স্বতন্ত্রসহ দুটি প্যানেল থেকে ৪৮ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। একটি মিশা-ডিপজল পরিষদ, অন্যটি কলি-নিপুণ পরিষদ। এর মধ্যে সভাপতি পদে লড়ছেন একসময়ের জনপ্রিয় নায়ক মাহমুদ কলি ও দাপুটে খল-অভিনেতা মিশা সওদাগর। আর সাধারণ সম্পাদক পদে গেলো আসরের মতো এবারও প্রার্থী হয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। তার বিপরীতে দাঁড়িয়েছেন চলচ্চিত্রের মুভি লর্ড ও দানবীর-খ্যাত অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

এবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু। এবারের মোট ভোটার ৫৭০ জন। তারাই বেছে নেবেন আগামী দুই বছরের চলচ্চিত্র শিল্পীদের নেতা-অভিভাবক।

(ওএস/এএস/এপ্রিল ১৯, ২০২৪)