ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » পাঠকের লেখা » বিস্তারিত

ভারতের শাসন ক্ষমতার লাগাম ধরছে কে

২০২৪ জুন ০৫ ১৬:৩৩:৩৪
ভারতের শাসন ক্ষমতার লাগাম ধরছে কে

রহিম আব্দুর রহিম


এশিয়ার সকল গণতন্ত্রমনা জনমানুষের আকাঙ্খা ছিল ভারত নির্বাচন দেখার। দেখেছে, এবারের নির্বাচনে সহিংসতার ইতিহাস তেমনটা নেই। ফলাফল জানার আগ্রহে সকল জরিপ, রাজনৈতিক হিসাব নিকাশকে পন্ড করে দিয়েছেন ভোটাররা। এখন অপেক্ষায়, কে বা কারা ভারতের শাসন ক্ষমতার লাগাম ধরছেন তা দেখার।

বিশ্বের বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ ভারতে সাত দফায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৪০ কোটি জনমানুষের দেশে এবার নথিভূক্ত ভোটার ছিলেন ৯৭কোটি, ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে ৬৪ কোটি ২০ লক্ষাধিক জনমানুষ। দেশটির নির্বাচন কশিশনার রাজিব কুমারের মতে, যা সর্বকালের বিশ্বরেকর্ড। প্রায় দেড়মাস ব্যাপী নির্বাচনের ভোট গণনা চলে ৪ জুন দিনব্যাপী। ওই রাতেই দেশটির নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ফলাফলে জানানো হয়, বিজেপির মোট প্রাপ্ত আসন ২৪০, কংগ্রেস পেয়েছে ৯৯ আসন, অন্যান্যরা পেয়েছেন মোট ২০৪ আসন। যেই দল বা জোট সরকার গঠন করুক না কেনো, তাদের আসন লাগবে ২৭২টি। বিজেপি নেতৃত্বধীন জোট এনডিএর সরকার গঠন করার মত আসন রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোর তথ্য অনুযায়ী, বিজেপি নেতৃত্বধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) জোটের আসন সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮৬টি। অপরদিকে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইন্ডিয়া জোটের আসন সংখ্যা ২০১টি। এই হিসেবে ৫৪৩টি আসনের মধ্যে ২৮৬ এনডিএ জোটের। এই জোটের সরকার গঠন করতে কোন সমস্যা নেই। আবার ২০১টি আসন পাওয়া কংগ্রেস জোটের সরকার গঠন করতে আরও ৭১টি আসনের প্রয়োজন। হিসেব অনুযায়ী জোট বিহীন আসন রয়েছে মাত্র ৫৬টি। এই ৫৬টি আসন যদি কংগ্রেসের জোটে নেওয়া যায়, এরপরও এনডিএ জোট থেকে তাদের ছাড়িয়ে আনতে হবে আরও ১৫টি আসন। তা কি ওই জোটের পক্ষে সম্ভব!এমন সন্দেহ থাকাটাই স্বাভাবিক। তবে সব সম্ভবের দেশ ভারতে এর ব্যতয় যে ঘটবে না তা হলফ করে বলা যাচ্ছে না। রাজনীতিতে শেষ বলে কোন কথা নেই, এই সূত্র ধরেই বলা যায়, বিজেপি একক সংগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় 'জোট-ছোট' আতংক যেমন রয়েছে, তেমনি জোটের টানাটানি, রাজনৈতিক দরকষাকষির উত্তেজনা চলবে আর কয়েকদিন। এই নিয়ে চলবে বিশ্লেষণ, মতামত, মন্তব্য। তবে দৃঢ় চিন্তে বলা যাচ্ছে না, কে বা কারা ভারতের শাসন ক্ষমতার লাগাম ধরছেন।

লেখক : শিশু সাহিত্যিক ও নাট্যকার।