ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬

প্রচ্ছদ » বিনোদন » বিস্তারিত

সংগীতের মহাযজ্ঞে পরিণত ফোকফেস্ট

২০১৬ নভেম্বর ১২ ১৫:২৭:২৫
সংগীতের মহাযজ্ঞে পরিণত ফোকফেস্ট

বিনোদন ডেস্ক : হাজার বছর ধরে বাংলার শেকড়ে ছড়িয়ে থাকা গানগুলোকে নবীনদের ভেতর ছড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি বিশ্ব লোকগানের সাথে বাংলা লোকগীতির মেলবন্ধন তৈরি করতে আয়োজন করা হয়েছে তিন দিনব্যাপী ঢাকা আন্তর্জাতিক লোক উৎসব-২০১৬।

১০ নভেম্বর শুরু হওয়া এই উৎসবের প্রথম দিনে প্রচুর লোকসমাগম হয়। দ্বিতীয় দিনে সংগীত প্রেমীদের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণে পৌঁছে যায়। এদিন সম্পূর্ণ আর্মি স্টেডিয়ামে শ্রোতার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

ফোকফেস্টের দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচি সন্ধ্যা ৬টায় আরম্ভ হওয়ার কথা থাকলেও ৫০ মিনিট দেরিতে শুরু হয়। প্রথমে মঞ্চে বাংলাদেশের লোকসংগীতের অন্যতম প্রধান উপকরণ বাঁশি বাজিয়ে স্টেডিয়াম মাতিয়ে তোলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় বাঁশি বাদক জালাল। তার শেষ পরিবেশনার সময় চমক হিসেবে মঞ্চে আসেন শিশুশিল্পী জাহিদ। জাহিদ বিখ্যাত ‘মধু হই হই’ গানটি গাওয়ার সাথে সাথে দর্শকরাও উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেন।

এরপর পর্যায়ক্রমে মঞ্চে পরিবেশন করেন কানাডার প্রসাদ, বাংলাদেশের জালাল, লতিফ সরকার, বাউল শফি মণ্ডল, লাবিক কামাল গৌরব, ভারতের ইন্ডিয়ান ওশেন, স্পেনের কারেন লুগো ও রিকারডো মেরো। সবশেষে গান পরিবেশন করেন জনপ্রিয় ভারতীয় সঙ্গীতশিল্পী কৈলাস খের।

উৎসবের দ্বিতীয় দিনে শ্রোতার উপস্থিতিতে স্টেডিয়াম ভরে ওঠে। শ্রোতাদেরকে আসন না পেয়ে মাঠে চাদর বিছিয়ে বসে পড়তে দেখা যায়। তবে সবার চেহারায় ছিল তৃপ্তির ছাপ। শিল্পীদের সাথে তারা গলা মিলিয়ে মাতিয়ে তোলেন আর্মি স্টেডিয়াম। ফোকফেস্ট পরিণত হয় সংগীতের এক মহাযজ্ঞে।

প্রসঙ্গত, আজ শনিবার পর্দা নামবে ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসবের দ্বিতীয় আসরের। মেরিলের পৃষ্ঠপোষকতায় এবার উৎসবের আয়োজন করেছে সান ইভেন্টস।

(ওএস/এএস/নভেম্বর ১২, ২০১৬)