ঢাকা, রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

মৃত্যু ৪, আক্রান্ত ৪০

মোংলায় করোনার ভয়ে হাসপাতাল ছাড়ছে সাধারণ রোগীরা!

২০২১ জুন ১০ ২৩:৩৪:০৫
মোংলায় করোনার ভয়ে হাসপাতাল ছাড়ছে সাধারণ রোগীরা!

বাগেরহাট প্রতিনিধি : মোংলাসহ বাগেরহাট জেলায় ভারতীয় ভেরিয়েন্টের সামাজিক সংক্রমন হওয়ায় হু-হু করে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বৃহস্পতিবার জেলায় করোনা আক্রান্ত ৬১ জনের মধ্যে হটস্পর্ট মোংলারই রয়েছে ৪০ জন। মোংলায় করোনা শনাক্তের হার ৬১. ২২ ভগে। তহুরুন্নেছা খুকি (৪২) ও মো. ইব্রাহিম (১৬) নামে দুইজন মারা গেছেন। এছাড়া বুধবার রাতে মারা গেছে খালেক (৬০), আসলাম (৪২) । মারা যাওয়া ৪ জন করোনা আক্রান্ত ছিলেন বলে নিশ্চিত করেছেন হাসাপাতালের চিকিৎসক ডা. দেবপ্রসাদ সাহা।

মোংলায় দেশের দ্বিতীয় আন্তজার্তিক সমুদ্র বন্দর হলেও হাসপাতালে নেই কোন আইসিইউ তেড সুবিধা। হাসপাতালে সেন্টাল অক্সিজেন ব্যবস্থা না থাকায় পাশাপাশি দিয়েছে অক্সিজেন সংকট। এই অবস্থায় করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে হিমসিম খেতে হচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগকে। যে সব করোনা রোগীদের অক্সিজেনের প্রয়োজন দেখা দিচ্ছে তাদের পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে। মোংলা উপজেলা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে দুই দফা দেয়া করোনা বিধি নিষেধে পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় বৃহস্পতিবার (১০ জুন) ভোর থেকে ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত চলমান কঠোর বিধি নিষেধকে আরো অধিক কঠোরতর বিধি নিষেধ জারি করেছে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন। নতুন করে জারি করা এ বিধি নিষেধে নদী পারাপার, যান চলাচল, দোকানপাট, পশুর হাট বন্ধের নির্দেশনা রয়েছে। তবে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে তা মানতে দেখা যায়নি। নদী পারাপার ও যান চলাচল করছে, রয়েছে লোকসমাগমও। খোলা রয়েছে দোকানপাটও।

স্বাস্থ্য বিধি, সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহারের বালাই নেই। পৌর শহরের প্রবেশমুখগুলোতে পুলিশ আনসার থাকলেও সেখান থেকে হরহামেশা বিভিন্ন ইউনিয়নের লোকজন ও যানবাহন চলাচল করছে। স্থায়ী বন্দর এলাকায়ও বাসসহ বিভিন্ন যান চলাচল ও লোকসমাগমও বেশি দেখা গেছে। নিষেধাজ্ঞা থাকার পরও ভারতগামী নৌযানের ষ্টাফেরা শহরে নেমে ঘুরাফেরা করছেন। গাদাগাদি করে নদী পারাপার ও নৌযানের স্টাফদের অবাদ চলাচলের বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এই অবস্থায় সংক্রমণের হার আরও বাড়বে বলে ধারনা করছে স্বাস্থ্য বিভাগের।

বাগেরহাট জেলায় বৃহস্পতিবার নতুন করে ৬১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে ও মৃত্যু হয়েছে ২ জন। বাগেরহাট জেলায় নতুন করে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে মোংলা উপজেলা ৪০ জন ছাড়াও ফকিরহাট ৫ মোড়েলগঞ্জে ৫ জন, সদর উপজেলায় ৮, শরণখোলায় ২ জন ও মোল্লাহাট উপজেরায় ১। জেলায় এপর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় করোনা সনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৯৯৫ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫৩ জনের। এখন সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৩ জন, বাকিরা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান বলেন, বাগেরহাটের সব উপজেলাতেই সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে মোংলায় সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি। গত ১৫ দিন ধরে উর্দ্ধমুখি। একারনে মোংলাতে আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত চলমান কঠোর বিধিনিষেধ বাড়ানো হয়েছে।

(এসএকে/এসপি/জুন ১০, ২০২১)