ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

প্রচ্ছদ » পাশে দাঁড়াই » বিস্তারিত

হাসি বিশ্বাস কি আর কখনো হাসবে না? 

২০২১ জুলাই ৩০ ১৭:২২:২২
হাসি বিশ্বাস কি আর কখনো হাসবে না? 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : যে বয়সে স্বামী সন্তান নিয়ে সংসার করার কথা সে বয়সে পঙ্গুত্ব বরণ করে বিছানায় দিনযাপন করছে ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ফুলহরি গ্রামের হাসি রানী বিশ্বাস (২৩)। ঘুমের মধ্যে খাট থেকে পড়ে ডান পা ভেঙ্গে যায় হাসির। অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে এক পর্যায়ে ডান পায়ের নিচের অংশ বেঁকে যায় তার। চিকিৎসার অভাবে বিছানায় দিন কাটছে তার। তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন তিন লক্ষাধিক টাকা। যা তার পরিবারের পক্ষে বহণ করা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফুলহরি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ার সময় মৃগীরোগে আক্রান্ত হয় হাসি রানী। বাবা চুন ফেরী করে বিক্রি করে বেড়ায়। ছোটবোন খুশির বিয়ে হয়েছে অনেক আগেই।

এদিকে বাবা ছাড়া তার পরিবারে উপার্জনক্ষম ব্যক্তি নেই। বাবা গোপেন বিশ্বাস মেয়ের চিকিৎসার জন্য আত্মীয় স্বজনের কাছে ধার দেনা করেও টাকা জোগাড় করতে পারছে না এর উপর আবার লকডাউনে দীর্ঘদিন কর্মহীন রয়েছেন তিনি। মেয়ের চিকিৎসার টাকা জোগাতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তিনি। এমতাবস্থায় সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন হাসির পরিবার ও তার প্রতিবেশীরা।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রিপোর্ট অনুযায়ী হাসির ডান পায়ের নিচের অংশের হাড় কয়েক টুকরো হয়ে গেছে। কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেছেন, দ্রুত তার অপারেশনের ব্যবস্থা করতে হবে দেশের উন্নত মানের ট্রমা সেন্টারে। আর অপারেশন করাতে তার অভাবী পরিবারকে গুনতে হবে ৩ লাখ টাকা।

হাসি রানীর প্রতিবেশী শুম্ভুনাথ কুণ্ডু জানান, আমরা স্থানীয়রা কিছু সহযোগিতা করে মাঝে মাঝে ওষুধই খাওয়াচ্ছি। অপারেশন করাতে পারছি না। পরিবারটি খুবই অসহায়। তাই অসুস্থ হাসির চিকিৎসার জন্য সমাজের বিত্তবানদের পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ করেছেন।

হাসি রানীর বিশ্বাসের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করতে হলে মোবাইল: ০১৭৭০৩৩৭০৪৬ আর্থিক সহযোগিতা করতে: ০১৭৭০৩৩৭০৪৬( বিকাশ ও নগদ)

(একে/এসপি/জুলাই ৩০, ২০২১)