ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯

প্রচ্ছদ » পাশে দাঁড়াই » বিস্তারিত

‘রিজিকের মালিক আল্লাহ, আমি শুধু চেষ্টা করেছি’

২০২২ জুন ২৯ ১৪:৪৫:২৬
‘রিজিকের মালিক আল্লাহ, আমি শুধু চেষ্টা করেছি’

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : মা-বাবা ছাড়া এই উদ্যোমী শিশুর স্বপ্ন আকাশ ছোয়া। সেই স্বপ্ন পূরণে পাশে ছিলো অদম্য শাকিল। মা-বাবার বিচ্ছেদ অতঃপর তাদের অন্যত্র বিয়ে। ছোটবেলা থেকে জীবন যুদ্ধে একা লড়তে থাকে। অনেক দিনের ইচ্ছে ছিলো রাস্তার পাশে একটি শরবত এর দোকান দিয়ে নিজে কিছু করার।

মানুষ হিসেবে কিছু ইচ্ছে থাকা অস্বাভাবিক না। কিন্তু সবার ইচ্ছে গুলো সবসময় পূরনও হয় না। জীবন যুদ্ধে টিকে থাকার লড়াই যেখানে মূখ্য সেখানে ছোট্ট ছোট্ট ইচ্ছে গুলো পূরণ হওয়া কল্পনাতীত। ঠিক এরকম কিছু ছোট্ট ছোট্ট ইচ্ছে পূরণ করে জীবন যোদ্ধাদের মুখে হাসি ফোটানোর উদ্দেশ্যেই "অদম্য ইচ্ছে পূরণ " ।

"ইচ্ছে পূরণ- ১" এ ছিলো একজন সুবিধাবঞ্ছিত শিশু নয়ন এর ইচ্ছে পূরণ। ছোটবেলা থেকে মা-বাবা ছাড়া বড় হয়েছে ঢাকা টি এস সি তে। অনেক বছর ফুল বিক্রি করেছে নয়ন কিন্তু এখন বড় হয়েছে একটু তাই আর সেই ইনকামে হয় না। নয়ন এর পরিচিত একজন এর শরবত এর দোকানে মাসে ৪০০০ টাকার বিনিমিয়ে কাজ করে। অনেক বছর এর ইচ্ছে নিজের যদি এমন একটি দোকান থাকতো। কিন্তু এই অল্প টাকায় দিনাতিপাত করে দিনশেষে দোকান দেওয়ার জন্য টাকা জমানো হয়ে উঠে না।

"অদম্য ইচ্ছে পূরণ" আমরা চেষ্টা করেছি নয়ন এর অনেক দিনের ইচ্ছাটি পূরণ করার। নয়ন এর শরবতের দোকান দেওয়ার যাবতীয় সারঞ্জাম সাজিয়ে গুছিয়ে তাকে সারপ্রাইজ করার ব্যাবস্থা করা হয়। সে জানতোই না ব্যাপার টা। যখনই তাকে সাজানো ভ্যানের সামনে চোখ বেধে নিয়ে আসা হয় তখন সে অবাক হয়ে যায়। অনেক দিনের ইচ্ছে পূরণ হওয়াতে নয়ন অনেক খুশি। শাকিল মৃধা, নয়নকে কথা দিয়েছি তার ব্যবসা বড় হতে সব সময় তার পাশে থাকবে।

এভাবেই অনেক সুবিধাবঞ্ছিত মানুষদের ইচ্ছে পূরণ করতে চায় অদম্য শাকিল মৃধা।

(এমএস/এএস/জুন ২৯, ২০২২)