ঢাকা, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রচ্ছদ » দেশের বাইরে » বিস্তারিত

যুদ্ধবিরতির মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র-ইসরায়েলকে কঠোর হুঁশিয়ারি ইরানের

২০২৩ নভেম্বর ২৯ ০০:১৫:৪৬
যুদ্ধবিরতির মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র-ইসরায়েলকে কঠোর হুঁশিয়ারি ইরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ান হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় যদি হত্যাযজ্ঞ চলতে থাকে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক যুদ্ধের সময় ইহুদিবাদী ইসরায়েল গাজায় গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী কর্মকাণ্ড চালিয়েছে।

কাতারভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আমির আব্দুল্লাহিয়ান এসব কথা বলেন। তার এ সাক্ষাৎকার মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) টেলিভিশন চ্যানেলটিতে সম্প্রচার হয়। গাজায় ইহুদিবাদী বাহিনী ও ফিলিস্তিনি যোদ্ধাদের মধ্যে যুদ্ধবিরতি চলার মাঝেই আমির আব্দুল্লাহিয়ান এসব কথা বললেন।

তিনি বলেন, গাজা উপত্যকায় ইহুদিবাদী ইসরায়েলের আগ্রাসন ও অপরাধযজ্ঞ অবশ্যই বন্ধ হতে হবে এবং অস্থায়ীভাবে যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি কার্যকর করা হয়েছে তা স্থায়ী যুদ্ধবিরতিতে রূপান্তর করতে হবে। তা না হলে মধ্যপ্রাচ্য নতুন পরিস্থিতির মুখে পড়বে বলে তিনি সতর্ক করেন।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধাপরাধ বন্ধ করার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল যদি কার্যকর পদক্ষেপ নিতে না পারে তাহলে তাদের কঠোর পরিস্থিতির মুখে পড়তে হবে।

গত শুক্রবার থেকে ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে চারদিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয় এবং গতকাল তা শেষ হয়। এরপর আরও দুদিনের জন্য যুদ্ধবিরতির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। এই যুদ্ধ বিরতির ফলে দুপক্ষ বেশ কিছু বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে এবং গত চারদিন ধরে গাজা উপত্যকায় বেশ কিছু ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে।

গাজা উপত্যকায় ইহুদিবাদী ইসরায়েলের আগ্রাসন শুরুর পর থেকেই ইরান তা বন্ধ করার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আসছে। ইরান বারবার বলেছে, ইসরায়েলের আগ্রাসন বন্ধ না হলে সংঘাত শুধুমাত্র ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে সীমাবদ্ধ থাকবে না, তা পুরো মধ্যপ্রাচ্যে ছড়িয়ে যেতে পারে।

তথ্যসূত্র : প্রেস টিভি, পার্সটুডে

(ওএস/এএস/নভেম্বর ২৯, ২০২৩)