ঢাকা, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল » বিস্তারিত

ঘুম থেকে উঠেই মাথায় যন্ত্রণা, কঠিন রোগের লক্ষণ নয় তো?

২০২৪ ফেব্রুয়ারি ০৪ ১৪:০১:৪৫
ঘুম থেকে উঠেই মাথায় যন্ত্রণা, কঠিন রোগের লক্ষণ নয় তো?

নিউজ ডেস্ক : মানসিক চাপ বা রোদে দীর্ঘক্ষণ বাইরে থাকলে মাথাব্যথা হতেই পারে। তবে মাথার যন্ত্রণার সঙ্গে যদি থাকে বমি, ভুলে যাওয়া ও হঠাৎ করেই ব্ল্যাক আউটের মতো উপসর্গ, তাহলে কিন্তু সতর্ক হতে হবে। এসব উপসর্গ কিন্তু মস্তিষ্কের টিউমারের লক্ষণ হতে পারে।

ব্রেন টিউমার শব্দটি কানে এলেই ভয়ে আঁতকে ওঠেন কমবেশি সবাই। অথচ সঠিক সময় তা ধরা পড়লে আধুনিক চিকিৎসার সাহায্য নিয়ে ব্রেন টিউমারের কবল থেকে মুক্তি পাওয়া খুব কঠিন নয়।

তবে টিউমার যদি ক্যানসারের পর্যায় পৌঁছায়, তাহলে সেটা চিন্তার বিষয়। তবে তার জন্য রোগীকে সতর্ক থাকতে হবে। তবে কোন কোন লক্ষণ দেখলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন, জেনে নিন-

মাথায় তীব্র যন্ত্রণা
এই অসুখের অন্যতম উপসর্গ হলো মাথায় তীব্র যন্ত্রণা। টিউমারের ক্ষেত্রে মাথাব্যথার ধরনটা আলাদা হয়। এক্ষেত্রে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর তীব্র মাথার যন্ত্রণা হয় রোগীর।

শরীরে কাঁপুনি
জ্বর নেই তবুও শরীরে কাঁপুনি শুরু হয়। কিছুক্ষণ পর যদিও তা স্বাভাবিক হয়ে যায়। এছাড়া মাথাব্যথার সঙ্গে সারাক্ষণ বমি বমি ভাব ও খাবারে অনীহাও হতে পারে।

স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া
হঠাৎ করেই কোনো ঘটনা মনে করতে না পারলে বা কিছুক্ষণ আগেই কী ঘটেছে তা হঠাৎ ভুলতে শুরু করলে সাবধান হয়ে যান। কারণ ব্রেন টিউমারের কারণে স্মৃতিশক্তি লোপ পায়। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া কোনো ঘটনাও কিছুতেই মনে পড়তে চায় না।

ঘুম ঘুম ভাব
সারাদিন যদি ঘুম ঘুম ভাব থাকে কিংবা ঘুম পায় তাহলে সতর্ক হতে হবে। ব্রেন টিউমার হলে এ লক্ষণ দেখা দেয়। আবার কোনো কাজ করতেও আলস্য আসে।

দৃষ্টিশক্তি কমে যায়
মস্তিষ্কের কোন অংশে টিউমার হয়েছে তার উপরেও কিছু কিছু লক্ষণ নির্ভর করে। সেরিব্রামের টেম্পোরাল লোবে টিউমার হলে দৃষ্টিশক্তি কমে যায়।

হাত-পা নাড়াচাড়ায় সমস্যা
হাত-পা নাড়াচাড়া করতে সমস্যা হয়। হাঁটা-চলার সময় ভারসাম্য বজায় থাকে না। ভাবনা ও বলার মধ্যে তালমিলের অভাব হতে পারে।

এছাড়া হাত দিয়ে কোনও জিনিস শক্ত করে ধরতে সমস্যা হয়। হাতে জোর কমে যায়। এমনকি ঢোঁক গিলতে ও খাবার খেতে অসুবিধা হতে পারে। অনেকের ক্ষেত্রে গন্ধবোধও চলে যায়।

স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন, পুষ্টিকর খাদ্যাভাস ও নিয়মিত শরীরচর্চা করে ব্রেন টিউমার ঠেকানো যায়। অতিরিক্ত মোবাইল ফোন বা ইলেকট্রনিক গ্যাজেট ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকা উচিত।

রেডিয়েশনের বিষয়েও সতর্ক থাকতে হবে। আর উপরোক্ত উপসর্গগুলো দেখা দিলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

তথ্যসূত্র : টুডে.কম/মায়ো ক্লিনিক

(ওএস/এএস/ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০২৪)