ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » দেশের বাইরে » বিস্তারিত

বন্দর ব্যবহারে ভারত-ইরান চুক্তির পর যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি

২০২৪ মে ১৪ ১৭:৫৮:০৩
বন্দর ব্যবহারে ভারত-ইরান চুক্তির পর যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বন্দর ব্যবহারে তেহরানের সঙ্গে ১০ বছর মেয়াদি চুক্তি করেছে ভারত। চুক্তির পরপরই যুক্তরাষ্ট্র হুঁশিয়ারি দিয়েছে, ইরানের সঙ্গে কোনো দেশ বাণিজ্য চুক্তি করলে সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে হবে। খবর বিবিসির।

চাবাহার নামে ইরানের ওই বন্দর উন্নয়নে ২০১৬ সালে ভারত একটি চুক্তি করেছিল। বন্দরটি কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ। পাকিস্তান সীমান্তের কাছেই ওই বন্দরের অবস্থান।

বন্দরটির আরও উন্নয়নে ভারত সোমবার দীর্ঘমেয়াদি আরেকটি চুক্তি করল। ভারতের নৌপরিবহনমন্ত্রী এটিকে ভারত-ইরান সম্পর্কের একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত বলে অভিহিত করেছেন।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলছেন, চুক্তিটি বন্দরে বড় বিনিয়োগের পথ পরিষ্কার করবে।

যুক্তরাষ্ট্র গত তিন বছরে ইরান-সম্পর্কিত বিভিন্ন সংস্থার ওপর ছয় শতাধিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে চুক্তি সম্পর্কে জানতে চাইলে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-মুখপাত্র ভেদান্ত প্যাটেল বলেন, ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা বলবৎ আছে এবং ওয়াশিংটন তা অব্যাহত রাখবে। কেউ যদি ইরানের সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তি বিবেচনা করে, তবে তাদের অবশ্যই সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের এ মন্তব্য নিয়ে ভারতের পক্ষ থেকে কোনো জবাব পাওয়া যায়নি।

২০১৮ সালের শেষদিকে ভারত বন্দরটির দায়িত্ব নেয়। আফগানিস্তান ও এশিয়ার মধ্যাঞ্চলে পণ্য পাঠানোর ক্ষেত্রে বন্দরটি ভারতের জন্য একটি ট্রানজিট রুট হিসেবে কাজ করছে। এক্ষেত্রে পাকিস্তানের স্থলপথ ব্যবহার করতে করতে হচ্ছে না ভারতকে।

এ পর্যন্ত চাবাহার বন্দর দিয়ে ভারত থেকে আফগানিস্তানে আড়াই মিলিয়ন টন গম এবং দুই হাজার টন ডাল পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

(ওএস/এসপি/মে ১৪, ২০২৪)