ঢাকা, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

শ্বশুর বাড়িতে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ, স্বজনদের দাবি হত্যা

২০২৪ মে ২৭ ২০:৪১:০৯
শ্বশুর বাড়িতে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ, স্বজনদের দাবি হত্যা

আলফাডাঙ্গা প্রতিনিধি : ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় শ্বশুর বাড়িতে আকলিমা বেগম (২৬) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ পাওয়া গিয়েছে। নিহতের স্বজনের দাবি যৌতুকের জন্য পরিকল্পিত ভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

সোমবার ২৭ মে আনুমানিক রাত ২ টায় এ ঘটনা ঘটেছে। পানাইল গ্রাম থেকে নিহত ওই গৃহবধূ লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

আকলিমা বেগম উপজেলার পৌর সভাধীন ৫ নং ওয়ার্ড ইছাপাশা গ্রামের মৃত শুকুর মোল্যা মেয়ে। ১৪ মাস আগে পানাইল গ্রামের বিসু শেখের ছেলে ইসমাইল শেখের সাথে আকলিমার পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে কোন সন্তান ছিলো না।

স্থানীয় সূত্রে যানা যায় দীর্ঘ দিন যৌতুকের জন্য পারিবারিক কলহের শিকার আকলিমা বেগম। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার গ্রামের মুরব্বি ও প্রতিবেশীদের মাধ্যমে মিমাংসা চেষ্টা করা হয়েছে বলে যানা যায়।

আকলিমার বড় ভাই হাফিজ মোল্যা জানান যৌতুকের জন্য স্বামী ইসমাইল শেখ ও শ্বশুরবাড়ির অন্যান্য লোকজন আকলিমাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে যৌতুক দিয়েছি। কয়েক বার সালিশ ও হয়েছে।কিছু দিন আগে ৫০ হাজার টাকা ইসমাইল ও তার মায়ের কাছে দিয়েছি। আবারও মোটা অঙ্কের যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দেওয়ায় আমার বোন অস্বীকৃতি জানালে তাকে মেরে ফেলা হয়েছে।এ ঘটনায় আমার বোনের হত্যাকারী ইসমাইলের বিচার দাবি করছি।

এদিকে আকলিমার শশুরবাড়িতে গেলে তার শশুর এবং স্বামী ইসমাইল শেখসহ কাউকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি।পরিবার থেকে বলা হয়েছে স্বামীর সাথে আকলিমার কথা কাটাকাটি হওয়ায় অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে।

আলফাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.সেলিম রেজা জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়া পরে আইনি ব্যবস্হা গ্রহন করা হবে।

(টিইউ/এএস/মে ২৭, ২০২৪)