ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

প্রচ্ছদ » দেশের খবর » বিস্তারিত

যশোর সিভিল সার্জন অফিস

নয় পদে ৩৫ হাজার ৪৪১ প্রার্থী লড়বেন ১৯ জুলাই

২০২৪ জুলাই ১০ ১৯:২৫:৩৯
নয় পদে ৩৫ হাজার ৪৪১ প্রার্থী লড়বেন ১৯ জুলাই

স্বাধীন মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ, যশোর : আগামী ১৯ জুলাই শুক্রবার যশোর সিভিল সার্জন অফিসে নয়টি পদে নিয়োগের জন্য লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। নয় পদে ১৯৯ জন জনবলের বিপরীতে পরীক্ষায় অংশ নেবেন ৩৫ হাজার ৪৪১ জন চাকরি প্রত্যাশী। শহরের স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার মধ্যে ৪০ টি প্রতিষ্টানে সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষার ভিতরে বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান লিখিত পরীক্ষা হবে ৮০ নম্বরের। লিখিত পরীক্ষার এক থেকে দুই দিনের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে। তারপর ২০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষার পর চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হবে। সরকারি চাকুরির বিধান অনুযায়ী কোটা থাকবে। তবে লিখিত পরীক্ষায় পাশ করার পর কোটা কার্যকর করা হবে।

বুধবার (১০ জুলাই) সিভিল সার্জনের হলরুমে সংবাদ সম্মেলন করে সিভিল সার্জন ডা. মাহমুদুল হাসান বলেন, শতভাগ স্বচ্ছতার সাথে পরীক্ষা নেয়া হবে। মেধারভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হবে। কেউ দালাল বা প্রতারকের খপ্পরে পড়ে আর্থিক লেনদেনে যাবেন না। নিয়োগের সাথে আর্থিক কোন সর্ম্পক নেই। পরীক্ষার মাধ্যমে মেধা ও যোগ্যতা প্রমাণ করতে পারলেই চাকরি হবে। কোন টাকা লাগবে না। পরীক্ষার আগের দিন রাতে প্রশ্ন তৈরি করা হবে। নির্ধারিত নিয়োগ বোর্ডের ৫ জন কোনো প্রকার ডিভাইস ছাড়া প্রশ্ন তৈরির কক্ষে প্রবেশ করবেন। সকালে প্রশ্ন কেন্দ্রে পৌঁছালে তারা নিধারিত কক্ষ ত্যাগ করবেন।

তিনি আরও বলেন, এই পরীক্ষা শতভাগ নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠ করা জেলার সিভিল সার্জন হিসেবে আমার কমিটমেন্ট। কোনো প্রকার লেনদেনের প্রমাণ পেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সুষ্ঠ ভাবে খাতা মূল্যায়ন করতে ১৫০ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ডেপুটি সিভিল সার্জন নাজমুস সাদিক, মেডিকেল অফিসার রেহেনেওয়াজ রনি, অনুপম দাস, সামিনা পারভীন।

উল্লেখ্য, যশোর সিভিল সার্জন অফিসের ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর জনবল নিয়োগে নয়টি পদে ৩৫ হাজার ৪৪১ জন আবেদনকারীর মধ্যে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে ৩ টি শুন্য পদের বিপরীতে ১১৭ জন, সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে ১ টি শুন্য পদের বিপরীতে ২৮, পরিসংখ্যানবিদ হিসেবে ৩ টি শুন্য পদের বিপরীতে ১৯১, কীট তত্ত্বীয় টেকনিশিয়ান হিসেবে ২ টি শুন্য পদের বিপরীতে ১৫৩ জন, কোল্ড চেইন টেকনিশিয়ান হিসেবে ২ টি শুন্য পদের বিপরীতে ১৩, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক হিসেবে ৬ টি শুন্য পদের বিপরীতে ৬৬৯, স্টোর কিপার হিসেবে ৭ টি শুন্য পদের বিপরীতে ২ হাজার ৯৬০, স্বাস্থ্য সহকারী পদে ১৭১ টি শুন্য পদের বিপরীতে ৩১ হাজার ৩৬ ও ড্রাইভার হিসেবে ৪ টি শুন্য পদের বিপরীতে ২৭৪ জন আবেদন করেছেন।

(এসএ/এসপি/জুলাই ১০, ২০২৪)